কলকাতায় বাংলাদেশি খাবারের উত্সব
ভর্তা কাহন
০২ আগষ্ট, ২০১৬ ইং
ভর্তা কাহন
বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গ—এই দুই ভূখণ্ডের ভাষা, সাহিত্য ও সংস্কৃতির ইতিহাস অবিচ্ছেদ্য। ফলে রসনাবোধেও তাদের মাঝে মিল খুঁজে পাওয়া যায়। সর্ষে ইলিশের নাম শুনে জিভে জল আসে না—এমন বাঙালি দুই ভূখণ্ডে খুঁজে পাওয়া অসম্ভব। তাই, মানচিত্রের বিচ্ছেদ নিয়েও রসনা ও ভোজনের ভালোবাসার সুতোয় আরেকবার নিজেদের গেঁথে নিতে আয়োজিত হতে যাচ্ছে ‘ভর্তা কাহন’।

বাঙালির রসনাকে পরিতৃপ্তি দিতে যার জুড়ি মেলা ভার, তার নাম ভর্তা। শুকনো লাল লঙ্কা তেলে ভেজে দেশি জাম (লাল) আলু ভর্তার সঙ্গে মাখিয়ে তাতে যখন ঢেলে দেওয়া হয় ঘানিতে ভাঙা খাঁটি সরিষার তেল, তখন তার দারুণ স্বাদে আহ্লাদিত হয় যেকোনো বাঙালির প্রাণ! আহা! সেই স্বাদ স্বর্গে নয়, কেবল বুঝি বঙ্গেই মেলে!

এমনই হরেক পদের ভর্তা নিয়ে কলকাতায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে—ভর্তা কাহন :বাংলাদেশের ভর্তার উত্সব।

আগামী ২১ অগাস্ট কলকাতার লেখক ও খাদ্য বিষয়ক ইতিহাসবিদ পৃথা সেনের পরিবেশনায় ঢাকানিবাসী রন্ধনবিশারদ নয়না আফরোজ ও কলকাতানিবাসী খাদ্যোত্সাহী ও ভোজনরসিক সোমনাথ রায় চৌধুরীর যৌথ প্রচেষ্টা এই উত্সব আয়োজিত হবে। বাঙালির ঘরে ঘরে মমতায় ভরা হেঁসেলে জন্ম নেওয়া ভর্তার এই রন্ধন-ঐতিহ্যকে বিশ্ব-দরবারে তুলে ধরাই এ উত্সবের লক্ষ্য। একইসঙ্গে এর উদ্দেশ্য হলো সকল খাদ্যরসিক যেন পায় ঢাকা, সিলেট, চট্টগ্রামসহ দেশজুড়ে ছড়িয়ে থাকা অসাধারণ স্বাদবৈচিত্র্যের সন্ধান। আর স্বাদ ও রসনা পরিতৃপ্তির মধ্য দিয়ে বাঙালি পরস্পরের হূদয়ের আরও কাছাকাছি হবে এটাই এই ভর্তা উত্সব আয়োজকদের প্রত্যাশা।-

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২ আগষ্ট, ২০১৮ ইং
ফজর৪:০৫
যোহর১২:০৫
আসর৪:৪২
মাগরিব৬:৪৪
এশা৮:০৪
সূর্যোদয় - ৫:২৮সূর্যাস্ত - ০৬:৩৯
পড়ুন