তরুণদের মাঝে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরার লক্ষ্যে
২০ ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং
মুক্তিযোদ্ধাদের আত্মত্যাগের মর্মকথা নতুন প্রজন্ম যাতে অন্তরে ও উপলব্ধিতে ধারণ করে সে ব্যাপারে উদ্যোগ নিতে হবে। এ দায়িত্ব প্রত্যেক বাবা-মা’সহ আমাদের সকলের। তা না হলে ভবিষ্যত্ প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধের কালজয়ী ইতিহাস ভুলে যাবে। তরুণদের সঠিক ইতিহাস জানার গুরুত্ব সম্পর্কে এমনই বলেছেন শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি ফাউন্ডেশন ও শান্ত-মারিয়াম ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা মো. ইমামুল কবীর শান্ত।

বিনম্র শ্রদ্ধা আর শোক গাঁথায় নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে গত ১৭ ডিসেম্বর পালিত হলো শহীদ মুক্তিযোদ্ধা দিবস-২০১৭। শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি ফাউন্ডেশন ও শান্ত-মারিয়াম ফাউন্ডেশন যৌথভাবে প্রতিবছরের মতো এবারও দিবসটি পালন করে। দিনব্যাপী আয়োজিত এ অনুষ্ঠানের প্রথমপর্বে সকাল ১১টায় শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের আজিমপুরস্থ নতুন কবরস্থানে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন এবং দ্বিতীয় পর্বে সন্ধ্যা ৬টায় রাজধানীর বিয়াম মিলনায়তনে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পরিবারের সদস্যদের পূণর্মিলনী, সংবর্ধনা, স্মৃতিচারণ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও নৈশভোজের আয়োজন করা হয়। 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী আ.ক.ম. মোজাম্মেল হক। অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও শব্দসৈনিক কামাল লোহানী, ঢাকাস্থ ভারতীয় হাই কমিশনের সচিব (শিক্ষা) জিষ্ণু প্রসন্ন মুখার্জী ও শান্ত-মারিয়াম ফাউন্ডেশনের ভাইস চেয়ারম্যান ডা. আহসানুল কবীর, শান্ত-মারিয়াম ইউনিভার্সিটি অব ক্রিয়েটিভ টেকনোলজির উপাচার্য প্রফেসর ড. কাজী মো. মফিজুর রহমান সহ ১৭ ডিসেম্বর শহীদ হওয়া ১১ টি শহীদ পরিবারের সদস্যরা। অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন শহীদ মুক্তিযোদ্ধা ফাউন্ডেশনের সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা জিএম পাইকার।

উল্লেখ্য, শান্ত-মারিয়াম ফাউন্ডেশন এক অকুতোভয় মুক্তিযোদ্ধা মো. ইমামুল কবীর শান্তর লালিত স্বপ্ন। যিনি ডিজিটাল বাংলাদেশের পাশাপাশি ক্রিয়েটিভ বাংলাদেশ আন্দোলনের ডাক দিয়েছেন। আর এজন্য তিনি শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করেন এবং দেশে কর্মমুখী ও সৃজনশীল শিক্ষা বাস্তবায়নের মাধ্যমে অর্থনৈতিক মুক্তির লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠা করেন এ অঞ্চলের প্রথম সৃজনশীল ও সাংস্কৃতিক বিশ্ববিদ্যালয় শান্ত-মারিয়াম ইউনিভার্সিটি অব ক্রিয়েটিভ টেকনোলজি।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২০ নভেম্বর, ২০২০ ইং
ফজর৫:১৪
যোহর১১:৫৬
আসর৩:৪০
মাগরিব৫:১৯
এশা৬:৩৭
সূর্যোদয় - ৬:৩৫সূর্যাস্ত - ০৫:১৪
পড়ুন