সাইবার আক্রমণ ঠেকাতে ব্যর্থদের দিতে হবে আর্থিক জরিমানা
১১ আগষ্ট, ২০১৭ ইং
সাইবার আক্রমণ ঠেকাতে ব্যর্থদের দিতে হবে আর্থিক জরিমানা
সাইবার আক্রমন ঠেকাতে না পারবেল গুনতে হবে জরিমানা। অবিশ্বাস্য হলেও সত্য যে, যুক্তরাষ্ট্রে কোনো প্রতিষ্ঠান যদি সাইবার হামলা ঠেকাতে না পারে তাহলে তার বিরুদ্ধে আর্থিক জরিমানার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটির সরকার। এ প্রক্রিয়ায় প্রতিটি কোম্পানিকে গুনতে হতে পারে সর্বোচ্চ ১ কোটি ৭০ লাখ পাউন্ড বা বৈশ্বিক টার্নওভারের ৪ শতাংশ। দেশটির সরকারের পক্ষ থেকে এ সতর্কতা জারি করা হয়েছে। বিশ্বব্যাপী সরকারি ও বেসরকারি খাতের পাশাপাশি বহুজাতিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে লক্ষ্য করে সাইবার আক্রমণ চালানো নিয়মিত ঘটনায় পরিণত হয়েছে। কিন্তু আগাম ব্যবস্থা নিয়েও এ ধরনের আক্রমণ ঠেকানো যাবে না। প্রতিষ্ঠানগুলোর সাইবার নিরাপত্তা দুর্বলতাকে ক্রমবর্ধমান এ ধরনের আক্রমণ বৃদ্ধির জন্য দায়ী করা হচ্ছে। অত্যন্ত জরুরি সেবা (পানি ও বিদ্যুত্ সরবরাহ, যোগাযোগ ও স্বাস্থ্যসেবা) খাত যাতে সাইবার আক্রমণমুক্ত থাকে, সেজন্য এ সতর্কতা জারি করেছে যুক্তরাজ্য সরকার। এর ফলে সাইবার আক্রমণ ঠেকাতে উদ্যোগী হবে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। সাইবার আক্রমণ ঠেকানোর বিষয়ে সতর্কতা জারির পাশাপাশি বিদ্যুত্ সরবরাহ বন্ধ ও প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় প্রতিষ্ঠানগুলোর নিজস্ব কৌশল সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদর্শনের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

যুক্তরাজ্যের ডিজিটাল মন্ত্রী ম্যাট হ্যানকক বলেন,‘কোনো প্রতিষ্ঠান সাইবার আক্রমণ ঠেকাতে ব্যর্থ হলে জরিমানা থেকে রেহাই পাওয়ার উপায় থাকবে না। এ পরিকল্পনা বিষয়ে সরকারের পক্ষ থেকে পরামর্শ প্রকল্প চালু করা হয়েছে।’ তিনি আরও বলেন,‘ আমরা চাই বসবাস বা অনলাইন দুনিয়ায় বিচরণের জন্য যুক্তরাজ্য বিশ্বের সবচেয়ে নিরাপদ স্থান হয়ে উঠুক। এজন্য আমাদের প্রয়োজনীয় সেবা ও গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামোগুলো ক্রমবর্ধমান সাইবার আক্রমণ ঝুঁকির বিষয়ে প্রস্তুত রাখতে হবে।’ দেশটির ডিজিটাল, সংস্কৃতি, মিডিয়া ও স্পোর্টস বিভাগের পক্ষ থেকে বলা হয়, যেসব প্রতিষ্ঠান সাইবার আক্রমণের বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছে, তারা এ ধরনের আক্রমণ ঠেকাতে এরই মধ্যে এক ধাপ এগিয়েছে। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে সরকারের পক্ষ থেকে নেটওয়ার্ক ও তথ্যপ্রক্রিয়া কীভাবে নিরাপদ করা সম্ভব, সে বিষয়ে পরামর্শ দেয়া হয়েছে। আগামী বছরের মে থেকে সরকারের এ পরামর্শগুলো আইনে পরিণত হবে। এ বছরের প্রথম দিকে দেশটির জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা খাতে বড় আকারের সাইবার আক্রমনের শিকার হয়। এতে করে দেশটিতে স্বাস্থ্যসেবা প্রদানে বেশ বিঘ্ন ঘটে। র্যানসমওয়্যার আক্রমণেও যুক্তরাজ্যের অসংখ্য প্রতিষ্ঠানের ক্ষতিগ্রস্থ হয় বলে দেশটি আন্তর্জাতি সংবাদ মাধ্যমগুলোকে তা নিশ্চিত করে। 

সূত্র :বিবিসি

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১১ আগষ্ট, ২০১৯ ইং
ফজর৪:১১
যোহর১২:০৪
আসর৪:৪০
মাগরিব৬:৩৮
এশা৭:৫৬
সূর্যোদয় - ৫:৩২সূর্যাস্ত - ০৬:৩৩
পড়ুন