জাতীয় | The Daily Ittefaq

‘ব্লকচেইন ডাটা নিয়ে কাজ করা দেশের জন্য গৌরবের’

‘ব্লকচেইন ডাটা নিয়ে কাজ করা দেশের জন্য গৌরবের’
অনলাইন ডেস্ক১০ জানুয়ারী, ২০১৮ ইং ১৫:৪৩ মিঃ
‘ব্লকচেইন ডাটা নিয়ে কাজ করা দেশের জন্য গৌরবের’
 
ডাক টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, ব্লকচেইন ডাটা নিয়ে কাজ করা বাংলাদেশের জন্য গৌরবের বিষয়। এটি নিয়ে কাজ করা বাংলাদেশের জন্য অন্যতম এক অর্জন। কারণ বাংলাদেশ ব্লকচেইন নিয়ে কাজ করতে পারে এটা এক সময় কল্পনাই করা যেত না।
 
আজ বুধবার রাজধানীর কাওরান বাজারের বেসিস মিলনায়তনে ‘বৈশ্বিক অর্থায়ন ব্যবস্থায় ব্লকচেইন-বাংলাদেশের করণীয়’ শীর্ষক আলোচনায় এসব কথা বলেন তিনি। দেশের শীর্ষ আইটি প্রতিষ্ঠান ইজেনারেশন লিমিটেড এই আলোচনার আয়োজন করে।
 
গোলটেবিল বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন ইজেনারেশন গ্রুপের চেয়ারম্যান শামীম আহসান। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডাক টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। বাংলাদেশে ব্লকচেইনের সম্ভাবনা নিয়ে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ইজেনারেশন গ্রুপের এক্সিকিউটিভ ভাইস চেয়ারম্যান এসএম আশরাফুল ইসলাম এবং সিলিকন ভ্যালির প্রযুক্তিবিদ, উদ্যোক্তা, বিনিয়োগকারী ও ইউপ্লাস ইনকর্পোরেশন এর প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী শওকত শামিম। 
 
আরো উপস্থিত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব শ্যাম সুন্দর শিকদার, সিটিও ফোরামের প্রেসিডেন্ট তপন কান্তি সরকার, বাংলাদেশ কল সেন্টার এ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট ওয়াহিদুর রহমান, বাংলাদেশের ব্যাংকের পরিচালক ড. জামাল উদ্দিন প্রমুখ।
 
মোস্তাফা জব্বার বলেন, ইজেনারেশন দুবাই এ ব্লকচেইন সলুশন দিচ্ছে যা বহির্বিশ্বকে অবহিত করে যে বাংলাদেশ ব্লকচেইনের মত সর্বাধুনিক প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করতে সক্ষম। আমরা আশা করি, ইজেনারেশনের মতো বাংলাদেশি অন্যান্য কোম্পানিগুলোও দেশের নাম উজ্জ্বল করতে ভূমিকা রাখবে। জনগণের জন্য উপকারি এমন যে কোনো প্রযুক্তির ক্ষেত্রে সরকার সম্পূর্ণরূপে সমর্থন করবে। এখানে উপস্থিত সকলকে আমি অনুরোধ করব, এই প্রযুক্তি থেকে বাংলাদেশ কিভাবে উপকৃত হতে পারে এটি নিয়ে পর্যাপ্ত গবেষণা করুন যেন সরকার এটিকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারে।   
 
উল্লেখ্য, ব্লকচেইন হল ডাটা সংরক্ষণ করার একটি নিরাপদ এবং উন্মুক্ত পদ্ধতি যে পদ্ধতি অনুযায়ী ডাটাগুলো বিভিন্ন ব্লকে একটির পর একটি চেইন আকারে সংরক্ষণ করা হয় এবং এতে ডাটার মালিকানা সংরক্ষিত থাকে। এই পদ্ধতিতে ডাটা সংরক্ষণ করলে কোনো একটি ব্লকের ডাটা পরিবর্তন করতে চাইলে সেই চেইনে থাকা প্রতিটি ব্লকে পরিবর্তন আনতে হবে যা অসম্ভব। তাই এই পদ্ধতিতে ডাটা সংরক্ষণ করাটা বেশ নিরাপদ।  
 
ইত্তেফাক/কেকে
 
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
১৯ অক্টোবর, ২০১৯ ইং
ফজর৪:৪২
যোহর১১:৪৪
আসর৩:৫২
মাগরিব৫:৩৩
এশা৬:৪৪
সূর্যোদয় - ৫:৫৭সূর্যাস্ত - ০৫:২৮