আবার তারা দু’জনে
২৩ অক্টোবর, ২০১৪ ইং
আবার তারা দু’জনে
দীপিকা আবারও শাহরুখের নায়িকা হলেন। এ সপ্তাহে মুক্তি পাচ্ছে, সফল এই পর্দাজুটির নতুন ছবি ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’। এই জুটির নানা বিষয়ের অবতারণা করেছেন

রেজাউল করিম খোকন

 

৭ বছর আগে ‘ওম শান্তি ওম’ ছবির মাধ্যমে বলিউডে দীপিকা পাড়ুকোনের ক্যারিয়ার শুরু হয়েছিল। ওই ছবির পরিচালক ছিলেন ফারাহ খান। প্রযোজনা করেছিলেন বলিউড বাদশা শাহরুখ খান এবং ফারাহ খান দু’জনে মিলে। ওই ছবিতে শাহরুখ খানের বিপরীতে নায়িকা হওয়ার বিরাট সুযোগ পেয়েছিলেন আনকোরা নতুন মুখ দীপিকা। মডেলিং থেকে আসা দীপিকার জন্য যা ছিল অভাবনীয় প্রাপ্তি। অভিনয়ের ক্ষেত্রে কিছুটা দুর্বলতা থাকলেও প্রথম অভিনীত ছবিতে শাহরুখ খানের মতো জাঁদরেল তারকা অভিনেতার পাশে নিজেকে মানিয়ে নিতে পেরেছিলেন তিনি। দর্শক তাদের দু’জনকে একসঙ্গে সাদরে গ্রহণ করেছিল। শাহরুখ-ফারহার কারণে রাতারাতি খ্যাতির শীর্ষে পৌঁছে গিয়েছিলেন নবাগতা অভিনেত্রী দীপিকা। এরপর ৭ বছর সময় পেরিয়েছে। এর মধ্যে নানা চড়াই-উতরাই পেরিয়ে বলিউডের শীর্ষ জনপ্রিয় অভিনেত্রীদের একজন হিসেবে নিজেকে শক্ত একটি অবস্থানে প্রতিষ্ঠিত করেছেন তিনি। সাম্প্রতিক কয়েক বছরে অভিনীত বেশ অনেকগুলো ছবির লাগাতার সাফল্য দীপিকাকে হিন্দি সিনেমার চাহিদাসম্পন্ন তারকায় পরিণত করেছে। গত বছর দীপিকা অভিনীত চার চারটি সিনেমা ব্লক বাস্টার সাফল্য পেয়েছে। এর মধ্যে একটি ছবি ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’-এ দীপিকাকে আবারও শাহরুখ খানের পর্দা প্রেমিকারূপে দেখা গেছে। এ ছবিতেও তারা দুজন বড় ধরনের সাফল্যের চমক দেখিয়েছেন। বলা বাহুল্য, ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’ ছবিটিরও প্রযোজক ছিলেন শাহরুখ খান। তৃতীয়বারের মতো দীপিকা আবারও শাহরুখ খানের নায়িকা হয়েছেন মুক্তি প্রতীক্ষিত ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’ ছবিতে। এ ছবিটি এবারের দিওয়ালি উত্সবে বিশ্বব্যাপী মুক্তি পাচ্ছে। ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’ ছবির মাধ্যমে আমি যেন আবার নিজের ঘরে ফিরলাম, ‘ওম শান্তি ওম’ ছবিতে কাজ করার সময়গুলোতে আমরা সবাই ফিরে গিয়েছিলাম। ফারাহ খান এবং শাহরুখ খান দু’জনে আমার অনেক দায়িত্ব নিয়েছিলেন তখন। আমাকে ভালোভাবে পর্দায় তুলে ধরতে তাদের দায়িত্বশীল মনোভাব আমি কোনোদিন ভুলব না, এবার ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’ ছবিতে আবার কাজ করার সময়ে শাহরুখ খান, ফারাহ খান এবং আমার মধ্যে আগের মতো আন্ডারস্ট্যান্ডিং মনোভাবটি বজায় ছিল। ফারাহ খান এখনও আমাকে আগের মতো ‘বেবি’ বলে ডাকেন, আমিও তাকে ‘মা’ ডাকি। যে কারণে তিনি আমাকে তার মনের মতো করে কাজে লাগিয়েছেন। আর আমিও অনেক সুযোগ নিয়েছি’, দীপিকা বলেন। ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’ ছবিতে নতুন কোনো নায়িকা নিয়ে কাজ করতে চেয়েছিলেন শাহরুখ এবং ফারাহ দু’জনেই। কিন্তু হঠাত্ করেই একদিন দীপিকাকে ফোন করেন ফারাহ, ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’ ছবিতে অভিনয়ের প্রস্তাব দিলে কোনো রকম চিন্তাভাবনা না করেই দীপিকা রাজি হয়ে যান। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ফারাহ খানের প্রস্তাব পেয়ে আমি সঙ্গে সঙ্গে ‘হ্যাঁ’ বলে ফেলি, ভাগ্য ভালো যে আমার ডেট ছিল হাতে, ইমতিয়াজ আলির ছবির কাজও তখন পিছিয়ে গিয়েছিল। ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’ ছবিতে অভিনয় করতে পেরে আমি নিজেও দারুণ হ্যাপি।’ শাহরুখ খানের সঙ্গে আগের ছবি দুটিতে যে ধরনের ব্যাপক সাড়া পেয়েছেন দর্শকদের কাছ থেকে এবারও ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’ ছবিতে তেমন সাড়া পাবেন বলে আশা করছেন দীপিকা। এ ছবিতে একজন সুন্দরী মারাঠি বার ড্যান্সারের চরিত্রে রূপদান করছেন তিনি। যার নাম মোহিনী যোশি। পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম সদস্য মেয়েটি একসময় একদল মানুষের সঙ্গে একটি মিশনে জড়িয়ে পড়ে। সে ওই দলের শিক্ষক হিসেবে অবতীর্ণ হয়। এ ছবিতে দীপিকা পাড়ুকোন গ্ল্যামারাস ইমেজে আকর্ষণীয় লুকে পর্দায় উপস্থিতি হবেন। নায়ক শাহরুখের সঙ্গে তার পর্দা রসায়নও দর্শকদের আরেকবার আলোড়িত করবে। শাহরুখ নিজেও এ বিষয়ে সচেতন ছিলেন। ‘দীপিকার সঙ্গে গত ৭ বছরে যে ক’টি ছবিতে কাজ করেছি তার সংখ্যা খুব বেশি না হলেও তাকে খুব কাছের একজন মনে করি আমি, আমাদের মধ্যে যে অন্তরঙ্গতা তা পেশাগত সম্পর্কের চেয়ে বেশি। যে কারণে দীপিকা ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’ ছবির জন্য বিশেষ মনোযোগ দিয়েছিল, এ কারণেই তার কাজও ভালো হয়েছে’, শাহরুখ সম্প্রতি এভাবে দীপিকার মূল্যায়ন করেন।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২৩ অক্টোবর, ২০১৯ ইং
ফজর৪:৪৩
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৪৯
মাগরিব৫:২৯
এশা৬:৪২
সূর্যোদয় - ৫:৫৯সূর্যাস্ত - ০৫:২৪
পড়ুন