বিকিনি গার্ল থেকে হলিউডে অভিনয়ে
০৫ এপ্রিল, ২০১৮ ইং
বিকিনি গার্ল থেকে হলিউডে অভিনয়ে
g তা হ মি না  মি লি

 

‘ডেথ উইশ’ ছবিটি মুক্তি পেয়েছিল ১৯৭৪ সালে। যেখানে মূল চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন চার্লস ব্রনসন। তখন বেশ সাড়া জাগিয়েছিল ছবিটি। ৪৪ বছর পর হলিউডে রিমেক হয়েছে সেই সাড়া জাগানো সিনেমাটি। চার্লস ব্রনসন অভিনীত পল কারসি একদল ডাকাতের দ্বারা আক্রান্ত হন। তার স্ত্রীকে হত্যা করে ডাকাতদল, কন্যা জর্ডান কারসিও ডাকাতদলের নির্মমতার শিকার হয়। এরপর চিকিত্সক পল কারসি সেই ডাকাত দলকে ধরতে নিজেই মাঠে নামেন। এমন রিভেঞ্জ অ্যাকশন মুভি ‘ডেথ উইশ’-এ পল কারসির কন্যা জর্ডান কারসি চরিত্রে অভিনয় করেছেন ক্যামিলা মুরোন। আর্জেন্টাইন এই সুন্দরী মডেল এর আগে জেমস ফ্র্যাঙ্কোর আলোচিত সিনেমা ‘বুকোভস্কি’-তে অভিনয় করেছেন। যা এখনো মুক্তি পায়নি। ক্যামিলা মুরোনকে সবাই চেনেন একজন সুন্দরী মডেল হিসেবে। ২০ বছর বয়সী এই তরুণী এরমধ্যে বিশ্বখ্যাত ভোগ ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদে এসে সবার আলাদা মনোযোগ আকর্ষণ করেছেন। বিশেষ করে মেয়েদের অন্তর্বাস এবং বিকিনির মডেল হয়ে তোলপাড় সৃষ্টি করেছেন মুরোন। তখন থেকেই তার ব্যাপারে কৌতূহলী সবাই। অভিনেত্রী হিসেবে মুরোনের অভিষেক ‘বুকোভস্কি’র মাধ্যমে। আত্মজীবনীমূলক এ ছবিটি মুক্তি না পেলেও অভিনেত্রী হিসেবে তার পরিচিতি ছড়িয়ে পড়েছে। আর্জেন্টিনার বুয়েন্স আয়ারসে তার জন্ম হলেও এখন আমেরিকায় স্থায়ী নিবাস গড়ে তুলেছেন। থাকছেন লস অ্যাঞ্জেলেসে। বিখ্যাত অভিনেতা লিওনার্দো ডি ক্যাপ্রিওর সঙ্গে ক্যামিলা মুরোনের ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের বিষয়টি নিয়ে মিডিয়ায় বেশ আলোচনা হয়েছে। যে কারণে আর্জেন্টাইন এই তন্বী মডেল ও অভিনেত্রীকে ঘিরে সবার কৌতূহল বেশ গাঢ় হয়েছে। ৪৩ বছর বয়স্ক ডি ক্যাপ্রিও এমনিতে সবসময় অপেক্ষাকৃত কম বয়সী মেয়েদের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। ২০ বছর বয়সী ক্যামিলা ডি ক্যাপ্রিওকে বন্ধুর চেয়েও বেশি একজন অভিভাবকের মতো ভাবতে চান। তাদের দুজনকে একসঙ্গে শপিং করতে দেখা গেছে অনেকবার। তাদের দুজনের মাখামাখি দেখে নানাজন নানা মন্তব্য করেছে। কেউ কেউ লিওনার্দো ডি ক্যাপ্রিওকে এ বিষয়ে প্রশ্ন করলে ক্যামিলা মুরোনকে বাচ্চা মেয়ে বলে অভিহিত করেছেন। ‘ডেথ উইশ’ ছাড়াও ‘বুকোভস্কি’, ‘নেভার গোয়িং ব্যাক’, ‘লাভ অ্যাডসেন্ট’ প্রভৃতি ছবিতে ক্যামিলার উজ্জ্বল উপস্থিতি এরমধ্যে সবাইকে আলোড়িত করেছে। আগামীতে হলিউডে তার ব্যস্ততা বাড়বে আশা করা যায়। কারণ অল্প বয়সেই অনেক দর্শকের নজর কাড়তে সক্ষম হয়েছেন এই আর্জেন্টাইন অভিনেত্রী। বিকিনির মডেল থেকে হলিউডে অভিনেত্রী হিসেবে তার উত্তরণ সমসাময়িককালে একটি উল্লেখযোগ্য ঘটনা হিসেবে বিবেচনা করা যায়। সম্প্রতি প্রেমিকা ক্যামিলার সঙ্গে লিওনার্দো ডি ক্যাপ্রিও তার নতুন ছবি ‘সালোম’-এর প্রিমিয়ার অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন। ক্যামিলার মা লুসিলা সেলাও একজন অভিনেত্রী ও মডেল। ৪১ বছর বয়সী এই মডেল কাম অভিনেত্রীর সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে প্রেম করেছেন হলিউডের বিখ্যাত অভিনেতা আল পাচিনো। অন্যদিকে ৪৩ বছর বয়সী লিওনার্দো আর ২০ বছর বয়সী ক্যামিলার প্রেম শুরু হয়েছে বেশিদিন হয়নি। মায়ের ৭৭ বছর বয়সী প্রেমিক আল পাচিনোর অভিনয়ের স্কুল থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে হলিউডের সিনেমায় নাম লিখিয়েছেন এই মডেল। তখন থেকে মিডিয়ার মনোযোগ আকর্ষণ করেছেন ক্যামিলা। বেশ কয়েকবার মা লুসিলা ও আল পাচিনোর সঙ্গে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে লাল গালিচায় হাঁটার সুযোগ হয়েছে তার। এভাবেই ক্যামিলা মুরোন আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে চলে এসেছেন ক্রমেই।

 

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৫ এপ্রিল, ২০২১ ইং
ফজর৪:৩০
যোহর১২:০২
আসর৪:৩০
মাগরিব৬:১৯
এশা৭:৩২
সূর্যোদয় - ৫:৪৭সূর্যাস্ত - ০৬:১৪
পড়ুন