দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ইংরেজি, ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা
১৫ মে, ২০১৭ ইং
দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ইংরেজি, ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা
মোহাম্মদ সারবিন মুন্সী

সহকারি অধ্যাপক, ইংরেজি বিভাগ

বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ পাবলিক কলেজ

 

দ্বাদশ শ্রেণির বন্ধুরা,

আজ আমরা Completing Sentence-এর “to be” structure নিয়ে আলোচনা করবো।

 

To be + adjective / noun / noun phrase             

Rule : কোন sentence-এ verb হিসেবে feel, suppose, imagine, report, discover, know, judge, assume, consider, find, think, believe, declare, prove ইত্যাদি থাকলে এদের পরের অংশে to be + adjective / noun বসিয়ে কিংবা শুধু adjective / noun বসিয়ে sentence-টিকে complete করা যায়। উল্লেখ্য যে, এ ধরনের sentence-এ কখনো কখনো to be + noun এর পরিবর্তে to be + noun phrase ও বসতে পারে। এ ধরনের sentence-এর structure ও উদাহরণ নিচে দেওয়া হলোঃ

 

a) Subject + উক্ত verb + object + to be + adjective / noun

b) Subject + উক্ত verb + (object) + adjective / noun

 

Q. I know him to —————.

A. I know him to be honest.

Q. We supposed him to be —————-.

A. We supposed him to be a gentle man.

Q. The lady was judged to be —————-.

A. The lady was judged to be guilty.

Q. —————— herself to be great.

A. She never imagined herself to be great.

Q. We considered him —————-.

A. We considered him honest. (OR, to be honest.)

Q. I believe my students —————.

A. I believe my students sincere. (OR, to be sincere.)

 

Practise Yourself:

Q. The man is reported to —————-.

Q. We assumed her to be —————-.

Q. They discovered the guard —————-.

Q. We felt the decision to —————-.

Q. The chief guest declared the sports —————-.

মো. কবির হোসেন (সুজন)

সিনিয়র প্রভাষক,ব্যবস্থাপনা বিভাগ

নিকুঞ্জ মডেল কলেজ, ঢাকা।

গতকালের পর

প্রিয় দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীবৃন্দ শুভাসিস রইল।  তোমাদের সুবিধার্থে ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা বিষয়ের ১ম পত্র হতে একটি উদ্দীপক এবং উদ্দীপকের আলোকে উত্তর প্রদান করা হলো। আশা করি তা তোমাদের সংগ্রহে থাকবে।

উদ্দীপকঃ 

,খ,গ সমান মূলধনের ভিত্তিতে একটি অংশীদারি কারবারের অংশীদার। অংশীদারদের প্রত্যেকের দায় সীমাহীন।  ব্যবসায়িক প্রয়োজনে খ চট্টগ্রাম যাবার পথে আকস্মিক সড়ক দুর্ঘটনায় তার একটি পাঁ অকেজো হয়ে যায়। তাই ব্যবসা চালানো তার পক্ষে অসম্ভব হয়ে পড়ে। তাই ক ও গ এর সম্মতিক্রমে খ এর ষোল বছরের ছেলে ঘ কে তারা ব্যবসায়ে অংশীদার করে নেয়। তবে প্রতিষ্ঠানে ঘ এর দায় লিমিটেড, মুনাফা সমপরিমাণ।

গ) উপরের উদ্দীপকে ক,খ ও গ এর ব্যবসাটি কোন ধরনের অংশীদারি কারবার? আলোচনা কর।

ঘ) উদ্দীপকে ঘ এর অন্তর্ভূক্তি কি অংশীদারি পর্যায়ভূক্ত? যদি হয় তবে তোমার মতামত দাও।

উদ্দীপকের গ নং প্রশ্নের উত্তরঃ  উপরের উদ্দীপকে ক,খ ও গ এর ব্যবসাটি হলো সাধারণ অংশীদারি ব্যবসায়।

যে অংশীদারি ব্যবসায়ে সকল অংশীদারের দায় সীমাহীন থাকে এবং ব্যবসা পরিচালনায় প্রত্যেকে অংশ গ্রহণ করে তাকে সাধারণ অংশীদারি ব্যবসায় বলা হয়।

উপরের উদ্দীপকে ক,খ ও গ তিনজন অংশীদারের দায় সীমাহীন  এবং তারা ব্যবসা পরিচালনায় প্রত্যেকে অংশ গ্রহণ করেছে আর দায় সীমাহীন  বলে এই ধরনের ব্যবসাকে সাধারণ অংশীদারি ব্যবসায় বলা হয়। এই ধরনের অংশীদারের দায় তাদের বিনিয়োজিত মূলধন অপেক্ষা অধিক হয় এবং তাদের ব্যক্তিগত সম্পত্তি দায়বদ্ধ হয়।

উদ্দীপকের ঘ নং প্রশ্নের উত্তরঃ  উদ্দীপকে ঘ এর অন্তর্ভূক্তি সীমাবদ্ধ অংশীদার।

চুক্তি অনুযায়ী বা চুক্তির শর্ত অনুযায়ী বা আইনগত কারণে ব্যবসায়ের কোন অংশীদারের দায় সীমাবদ্ধ হলে তাকে সীমিত বা সীমাবদ্ধ অংশীদার বলা হয়। আর এইরূপ ক্ষেত্রে একজন নাবালকের দায় সীমাবদ্ধ হয়ে থাকে।

উপরের উদ্দীপকে খ একজন সাধারণ অংশীদার ছিল। আকষ্মিক দুর্ঘটনায় ব্যবসা পরিচালনায় তার পক্ষে অসম্ভব হয়ে পড়ে। তাই বাকী দুই অংশীদারের সম্মতিক্রমে গ এর ষোল বছরের সন্তান অর্থাত্ নাবালক সন্তানকে ব্যবসায়ে অংশীদার করার সিদ্ধান্ত নেয়। তা্ই আঠার বছরের কম বয়সের কোন অংশীদারকে নাবালক অংশীদার বলা হয়। আর এই ধরনের অংশীদারের দায় সীমাবদ্ধ বলে তাকে সীমাবদ্ধ অংশীদার বলা হয়।

সাধারণত বিভিন্ন ধরনের অংশীদারের মধ্যে সীমাবদ্ধ অংশীদার এমন একটি অংশীদার শুধুমাত্র সুবিধা প্রদানের জন্য এই ধরনের অংশীদারকে অংশীদার করা হয়। তবে তাদের দায় প্রতিষ্ঠানে বিনিয়োজিত মূলধন অপেক্ষা বেশি হয় না। তবে আইন অনুযায়ী এই ধরনের অংশীদার ব্যবসা পরিচালনা করতে পারে না। তথাপিও এরা প্রতিষ্ঠানের অংশীদার।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১৫ মে, ২০২১ ইং
ফজর৩:৫২
যোহর১১:৫৫
আসর৪:৩৩
মাগরিব৬:৩৬
এশা৭:৫৬
সূর্যোদয় - ৫:১৬সূর্যাস্ত - ০৬:৩১
পড়ুন