পাঁচবিবিতে বিজিবির হামলায় সাংবাদিকসহ ২০ জন আহত
পাঁচবিবিতে গ্রামবাসীর ওপর বিজিবির হামলায় সাংবাদিকসহ ২০ জন আহত হয়েছেন। গত মঙ্গলবার সকালে চেঁচড়া সীমান্তে চোরাকারবারীরা এক বিজিবি সদস্যের হাতে ছুরিকাঘাত করে ভারতে পালিয়ে যায়। এরই জের ধরে বিকালে আটাপাড়া ক্যাম্পের হাবিলদার নোয়াব আলীসহ ১০/১২ জন বিজিবি চেঁচড়া গ্রামের নিরীহ লোকজনের ওপর হামলা চালায়। তাদের হামলার শিকার হয়েছেন সাত বছরের শিশু তামিম ও গৃহবধূ হাসিনা, ছকিনাসহ ২০ জন। খবর পেয়ে বাগজানা ইউপি চেয়ারম্যান নাজমুল হক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূর উদ্দিন আল ফারুক ও ২০ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক মোস্তাফিজ ঘটনাস্থলে যান।

এলাকাবাসী জানান, গত মঙ্গলবার বিকালে আটাপাড়া ক্যাম্পের বিজিবি সদস্যরা চেঁচড়া গ্রামে ঢুকে অতর্কিত হামলা চালায়। নিরীহ লোকজনকে লাঠি দিয়ে এলোপাতাড়ি মারধর করে। বাড়িতে ঢুকে ঘুমন্ত ও ভাত খেতে বসা লোকজনকেও পেটাতে থাকে। নারীদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও মারধর করে। আতঙ্কে লোকজন দিগ্বিদিক ছুটাছুটি করে। এ সময় গ্রামবাসীর ওপর বিজিবির নির্যাতনের ছবি তোলায় দৈনিক খবর পত্রের সাংবাদিক মোসলেম উদ্দিনকে বেধড়ক লাঠিপেটা করা হয়। তার বাম হাতের আঙ্গুল ভেঙে যায়। আহতদের শরীরের বিভিন্ন স্থানে ফোলা ও বেদনাদায়ক জখমের চিহ্ন রয়েছে।

চেঁচড়া গ্রামের কমেলা বেওয়া বলেন, তার ছেলে হানিফ মাছ ধরছিল সেখানে বিজিবি তাকে লাঠিপেটা করে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূর উদ্দিন আল ফারুক বলেন, গ্রামবাসীরা আঘাতের চিহ্ন দেখান। সেখানে একটি শিশুকেও মারধর করা হয়েছে।

জয়পুরহাট ২০ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক মোস্তাফিজ বলেন, এ ভাবে মারধর করা অন্যায়। দোষীদের ক্লোজ করা হবে।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৮ নভেম্বর, ২০২০ ইং
ফজর৫:০৭
যোহর১১:৫১
আসর৩:৩৬
মাগরিব৫:১৫
এশা৬:৩৩
সূর্যোদয় - ৬:২৭সূর্যাস্ত - ০৫:১০
পড়ুন