দিনাজপুর পল্লী বিদ্যুত্ সমিতি-২
ডিজিএমের বিরুদ্ধে আর্থিক অনিয়মের অভিযোগে ঢাকায় প্রত্যাহার
আর্থিক অনিয়মের অভিযোগে দিনাজপুর পল্লী বিদ্যুত্ সমিতি-২ (ফুলবাড়ি-বিরমাপুর) এর উপ-মহাব্যবস্থাপক আবুল কালাম আজাদকে গত সোমবার প্রত্যাহার করা হয়েছে। গঠন করা হয়েছে তদন্ত কমিটি। সাবেক মহাব্যবস্থাপক (জিএম) আব্দুর রাজ্জাক হজ্বব্রত পালনের জন্য গত ৭ আগস্ট থেকে ২৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ছুটিতে থাকাকালীন উপ-মহাব্যবস্থাপক আবুল কালাম আজাদ ভারপ্রাপ্ত মহাব্যবস্থাপক (জিএম) এর দায়িত্ব পালন করেন। এ সময় কর্মরত এলাকার প্রতিটি নতুন সেচ পাম্পে সংযোগ দেওয়ার নামে দুই লাখ টাকা করে উেকাচ নেন। একই কায়দায় ফুলবাড়ি, বিরামপুর, নবাবগঞ্জ, পার্বতীপুর, হাকিমপুর ও ঘোড়াঘাট উপজেলায় শতাধিক সেচ পাম্পে বিদ্যুত্ সংযোগ দেয়া হয়। চেংগ্রামের ২১টি বাড়িতে নতুন বিদ্যুত্ সংযোগ দেওয়ার জন্য প্রত্যেক বাড়ি থেকে ১৫ হাজার টাকা আদায় করেছেন ওই ডিজিএম। এ ঘটনায় ওই গ্রামের জাকিরুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তি এক মাস আগে ডিজিএম আবুল কালাম আজাদের ঘুষ বাইিজ্যের বিষয়ে সমিতিতে লিখিত অভিযোগ দেন। এ ঘটনায় পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের সহকারী পরিচালক (ডিডি প্রশিক্ষণ) শাহ আলমকে তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হলে তিনি গত মঙ্গলবার সরেজমিনে তদন্ত করেন।

ডিজিএম আবুল কালাম আজাদের বক্তব্য নেওয়ার জন্য যোগাযোগ করা হলে তার মুঠোফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

দিনাজপুর পল্লী বিদ্যুত্ সমিতি-২ (ফুলবাড়ি-বিরমাপুর) এর মহাব্যস্থাপক (জিএম) সন্তোষ কুমার বলেন, ডিজিএম আবুল কালাম আজাদকে প্রত্যাহারের আদেশ পাওয়ার পরপরই তাকে সমিতি থেকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৮ নভেম্বর, ২০২০ ইং
ফজর৫:০৭
যোহর১১:৫১
আসর৩:৩৬
মাগরিব৫:১৫
এশা৬:৩৩
সূর্যোদয় - ৬:২৭সূর্যাস্ত - ০৫:১০
পড়ুন