আদিতমারীতে নামেই মহিলা মার্কেট!
আদিতমারীতে নামেই মহিলা মার্কেট!
ক্ষমতা যার, মহিলা মার্কেট তার। এভাবেই ব্যবহার হচ্ছে মহিলা মার্কেট (ওম্যান্স কর্নার)। নামেই মহিলা মার্কেট। ব্যবহার হচ্ছে গোডাউন হিসেবে। এসব বিষয় নিয়ে মাথাব্যথা নেই উপজেলা প্রশাসনের। আর এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে মহিলা মার্কেটের দোকান ঘর দীর্ঘদিন যাবত্ ব্যবহার করে আসছেন কতিপয় সুবিধাবাদী লোকজন।

জানা গেছে, আদিতমারী উপজেলা সদরের বুড়িরবাজার হাটে মহিলাদের জন্য একটি মহিলা মার্কেট নির্মাণ করা হয়। এ মার্কেটের দোকানদার হবেন শুধু মাত্র মহিলারা। তারা সরকারকে প্রতি মাসে একশ’ টাকা ভাড়া দিয়ে এখানে ব্যবসা করবেন এমনটাই ছিল নিয়ম। কিন্তু এ নিয়মের কোনো তোয়াক্কা না করে নামেমাত্র মহিলার নামে বরাদ্দ নিয়ে দেদারছে ব্যবসা আর গোডাউন হিসেবে ব্যবহার করে আসছেন কতিপয় ব্যক্তি।

উপজেলা প্রকৌশলী অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, বুড়িরবাজার মহিলা মার্কেটে রয়েছে আটটি দোকান। এখানকার অধিকাংশ দোকানই বন্ধ থাকে। এরমধ্যে একটি মাত্র দোকানে একজন মহিলা দীর্ঘদিন যাবত্ ব্যবসা করে আসছেন। আর বাকি সাতটি দোকান রয়েছে পুরুষদের দখলে। বাসন্তি লেডিস টেইলার্স নামের দোকানটি বুড়িরবাজারের বড় ব্যবসায়ী হারিছ মিয়ার গোডাউন হিসেবে দখলে রয়েছে। ভাই ভাই লন্ড্রি ঘর হামিদা বেগমের নামে বরাদ্দ নিয়ে দীর্ঘদিন ব্যবসা করে আসছেন মোহাম্মদ আলী নামের একজন ব্যবসায়ী। জোবেদ মিয়ার দখলে রয়েছে জেসমিন লেডিস টেইলার্স নামের দোকানটি। মর্জিনা বস্ত্রালয় নামের দোকানটি গোডাউন হিসেবে ব্যবহার করছেন মৃণাল কান্তি। হাজেরা মেডিক্যাল হল বেবী নামের একজন মহিলার নামে বরাদ্দ নিয়ে ব্যবসা করে আসছেন জয়নাল আবেদীন। যিনি পল্লী চিকিত্সক হিসেবে ব্যবসা করে আসছেন সেখানে। সন্ধ্যা রাণীর নামে বরাদ্দ নিয়ে ব্যবসা করছেন শ্যামল নামের একজন ইলেকট্রিশিয়ান। এভাবেই চলছে মহিলা মার্কেট। যেখানে মহিলারা যেতে পারেন না।

উপজেলা প্রকৌশলী অধিদপ্তরের সিও রেজাউল করিম জানান, এসব দোকানের চাবি বুড়িরহাট ইজারাদারের কাছে রয়েছে। তিনিই এসব দেখভাল করে থাকেন।

ইউএনও আসাদুজ্জামান বলেন, বিষয়টি সম্পর্কে আমার জানা নেই। তবে বিষয়টি সম্পর্কে খোঁজ খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন তিনি।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২১ ইং
ফজর৫:১০
যোহর১২:১৩
আসর৪:২১
মাগরিব৬:০১
এশা৭:১৪
সূর্যোদয় - ৬:২৬সূর্যাস্ত - ০৫:৫৬
পড়ুন