বাগমারায় ভুয়া ভাইস চ্যান্সেলর গ্রেফতার
২০ ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং

বাগমারা (রাজশাহী) সংবাদদাতা

নিজেকে বাগমারার হামিরকুত্সা ইউনিয়নের অর্জনপাড়া মদিনাতুল উলুম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর দাবিদার মাওলানা রফিকুল ইসলামকে আবারও গ্রেফতার করেছে বাগমারা থানা পুলিশ। এ সময় পুলিশ তার ব্যবহূত একটি মাইক্রোবাস জব্দ করে থানায় নিয়ে যায়।

জানা গেছে,  গতকাল মঙ্গলবার সকালে মাওলানা রফিকুল ইসলাম উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাকিউল ইসলামের দপ্তরে এসে নিজেকে অর্জুনপাড়া মদিনাতুল উলুম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর পরিচয় দিয়ে ব্যাংকের টাকা উত্তোলনের জন্য কিছু কাগজপত্রে ইউএনও’র স্বাক্ষর চান।

এ সময় ইউএনও তার কাছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার বৈধ কাগজপত্র দেখতে চাইলে ও কিছু প্রশ্ন করলে রফিকুল ইসলাম তার জবাব দিতে কাগজপত্র দেখাতে ব্যর্থ হলে ইউএনও পুলিশকে খবর দিয়ে তাকে পুলিশের হাতে তুলে দিয়ে তার বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দেওয়ার নির্দেশ দেন।

ইউএনও জাকিউল ইসলাম জানান, নিজেকে ভাইস চ্যান্সেলর পরিচয়দানকারী রফিকুল ইসলামের নানা বিতর্কিত কর্মকাণ্ড একাধিক প্রতারণার কারণে এলাকাবাসীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে গত কয়েকদিন আগে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের দপ্তর থেকে তার দপ্তরে চিঠি দিয়ে জানানো হয়েছে বাগমারায় এই নামে (অর্জুনপাড়া মদিনাতুল ইলুম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়) নামে কোনো প্রতিষ্ঠান নেই।

চিঠিতে এই নাম ব্যবহারকারী প্রতারকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য অনুরোধ জানানো হয়। উক্ত চিঠি ও  ভুক্তভোগী এলাকাবাসীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে রফিকুল ইসলামকে পুলিশে সোপর্দ করে তার বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দেওয়ার জন্য বাগমারা থানার পুলিশকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বাগমারা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাছিম আহম্মেদ জানান, প্রতারণার ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে রফিকুল ইসলামকে তার ব্যবহূত মাইক্রোসহ গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হবে।

এর আগে একই অভিযোগে রফিকুল ইসলাম আরো দুইবার ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা ভোগ করেন।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২০ নভেম্বর, ২০২১ ইং
ফজর৫:১৪
যোহর১১:৫৬
আসর৩:৪০
মাগরিব৫:১৯
এশা৬:৩৭
সূর্যোদয় - ৬:৩৫সূর্যাস্ত - ০৫:১৪
পড়ুন