জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ র্যাংকিং-এ
সিদ্ধেশ্বরী গার্লস কলেজ দেশের সেরা
জহিরুল ইসলাম২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ইং
সিদ্ধেশ্বরী গার্লস কলেজ দেশের সেরা
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজ র্যাংকিংয়ে সিদ্ধেশ্বরী গার্লস কলেজ দেশের সেরা মহিলা কলেজ নির্বাচিত হয়েছে। গত ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছ থেকে সেরা মহিলা কলেজ স্বীকৃতি সনদ গ্রহণ করেন সিদ্ধেশ্বরী গার্লস কলেজের অধ্যক্ষ কানিজ মাহমুদা আকতার। এ সম্মাননা প্রদানের ক্ষেত্রে সিদ্ধেশ্বরী গার্লস কলেজের শিক্ষার পরিবেশ, পরীক্ষার ফলাফল, শিক্ষক মন্ডলীর দক্ষতা ও ডিভোসন, শিক্ষা অবকাঠামো, তথ্যপ্রযুক্তির প্রয়োগ, শিক্ষা সহায়ক কার্যক্রম, গ্রন্থাগার, প্রকাশনা, প্রভৃতি বিবেচনা করা হয়েছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছ থেকে এ ধরণের অনন্য সনদ অর্জন কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থী এবং  অভিভাবকদের নতুনভাবে অনুপ্রাণিত করেছে। এ ধরণের বিরল স্বীকৃতি নারীর ক্ষমতায়নে সিদ্ধেশ্বরী গার্লস কলেজের ভূমিকাকে আরো জোরদার করবে।

রাজধানীর ১৪৮, নিউ বেইলি রোডে অবস্থিত সিদ্ধেশ্বরী গার্লস কলেজ ১৯৬৬ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়ে একটি অনন্য ও অসাধারণ উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে নারী শিক্ষা সম্প্রসারণে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। কলেজের সফলতা নিয়ে কলেজের অধ্যক্ষ কানিজ মাহমুদা আকতার বলেন, ‘কলেজে অনার্স-মাস্টার্স কোর্সে শতভাগ পাশের রেকর্ড অর্জনসহ বোর্ড-বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন পরীক্ষায় ছাত্রীরা পর্যায়ক্রমে মেধা তালিকায় স্থান করে নিয়েছে। আমাদের ছাত্রীরা অর্জন করেছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের Vice Chancellor Award| আমাদের এ ফলাফলের পিছনে রয়েছে কলেজের মেধাবী ও দেশ-বিদেশে প্রশিক্ষিত শিক্ষকদের নিরলস পরিশ্রম, নিবেদিত পাঠদান এবং আন্তরিক সহযোগিতা, ছাত্রীদের অধ্যয়ন মনস্কতা ও লক্ষ্যে পৌঁছানোর অদম্য  ইচ্ছা এবং অভিভাবকদের সুচিন্তিত মতামত, পরামর্শ ও আন্তরিকতা।’

 তিনি আরো বলেন, ‘আমাদের সকল সফলতার নেপথ্যে রয়েছেন দীর্ঘ ৫০ বছরে এ কলেজে পরিচালনা পরিষদের সাথে সম্পৃক্ত গভর্নিং বডির সম্মানিত সভাপতিবৃন্দসহ সকল সদস্য। তাদের আন্তরিক সহযোগিতা, সুচিন্তিত মতামত, সময়োপযোগী পদক্ষেপ ও সুদক্ষ পরিচালনায় কলেজ অর্জন করছে উত্তরোত্তর সমৃদ্ধি। কলেজকে নিত্য নতুন রূপে সজ্জিত করতে প্রতি বছরই নতুন নতুন পরিকল্পনা গ্রহণ করছি আমরা। আমাদের প্রশাসন গতিশীল, একাডেমিক কার্যক্রম গুণগত মান সম্পন্ন। বর্তমান যুগ জ্ঞান ও প্রযুক্তির যুগ। জ্ঞান ও প্রযুক্তি নির্ভর বিশ্বমানের শিক্ষায় সমৃদ্ধ হোক আমাদের ছাত্রীরা। বর্তমান সময়ে শিক্ষায় বিনিয়োগ হচ্ছে শ্রেষ্ঠ বিনিয়োগ। সরকারের টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রার সাথে সামঞ্জস্য রেখেই চলছে কলেজের প্রতিটি কার্যক্রম। এছাড়া আমাদের রয়েছে সততা সংঘ, মাদক বিরোধী সংগঠন, দুর্নীতি বিরোধী কমিটি, যা ছাত্রীদের নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত করে আলোকিত মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে সাহায্য করে। প্রতি বছর এই সকল কমিটির উদ্যোগে জঙ্গি, মাদক, সন্ত্রাস, দুর্নীতি, ইভটেজিং বিরোধী বিভিন্ন র্যালি ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।’

 

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২১ ইং
ফজর৫:০৬
যোহর১২:১২
আসর৪:২৩
মাগরিব৬:০৪
এশা৭:১৬
সূর্যোদয় - ৬:২১সূর্যাস্ত - ০৫:৫৯
পড়ুন