গ্রামীণ ব্যাংকের নয় পরিচালকের পদ শূন্য ঘোষণা কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট
ইত্তেফাক রিপোর্ট৩০ এপ্রিল, ২০১৫ ইং
গ্রামীণ ব্যাংকের নয় পরিচালকের পদ শূন্য ঘোষণা কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট
গ্রামীণ ব্যাংকের নির্বাচিত নয়জন পরিচালকের পদ শূন্য ঘোষণা করে অর্থ মন্ত্রণালয়ের দেয়া চিঠি কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছে হাইকোর্ট। আগামী দশ দিনের মধ্যে অর্থ মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। এক রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে বিচারপতি ফারাহ মাহবুব ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের ডিভিশন বেঞ্চ গতকাল বুধবার এই আদেশ দেন।

চলতি বছরের ৭ ফেব্রুয়ারি মেয়াদ শেষ হওয়ায় ৩০ মার্চ অর্থ মন্ত্রণালয় গ্রামীণ ব্যাংকের ৯ নির্বাচিত পরিচালকের পদ শূন্য ঘোষণা করে একটি চিঠি দেয়। এ চিঠির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে ৬ এপ্রিল রিট আবেদন দায়ের করেন ব্যাংকের পরিচালক তাহসিনা খাতুন। রিট আবেদনে বলা হয়, গ্রামীণ ব্যাংকের পরিচালক নির্বাচন বিধিমালার মতে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পূর্ব পর্যন্ত নির্বাচিত পরিচালকরা দায়িত্ব পালন করতে পারবেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত নির্বাচনের জন্য কমিশনও গঠন করা হয়নি। তাই তাদের পদ খালি করে চিঠি দেয়া অবৈধ। আদালতে আবেদনের পক্ষে ব্যারিস্টার মোস্তাফিজুর রহমান খান ও ব্যারিস্টার তামিম হোসেন শাওন এবং রাষ্ট্রপক্ষে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আমাতুল করিম শুনানি করেন। শুনানি শেষে হাইকোর্ট রুল জারি করে।

গ্রামীণ ব্যাংকের তিন বছর মেয়াদী ১২ সদস্যের পরিচালনা পর্ষদের মধ্যে ঋণগ্রহীতা সাধারণ সদস্যদের মধ্য থেকে নির্বাচিত ৯ জন পরিচালক রয়েছেন। এছাড়া বাকি তিনজন সরকার কর্তৃক নিযুক্ত হন। যাদের মধ্যে একজন চেয়ারম্যান হয়ে থাকেন।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৩০ এপ্রিল, ২০১৯ ইং
ফজর৪:০৪
যোহর১১:৫৬
আসর৪:৩২
মাগরিব৬:২৯
এশা৭:৪৭
সূর্যোদয় - ৫:২৫সূর্যাস্ত - ০৬:২৪
পড়ুন