পানি পানে ব্লাড সুগার হ্রাস পায়!
ডা. মোড়ল নজরুল ইসলাম০৩ মার্চ, ২০১৬ ইং
ব্লাড সুগার ডায়াবেটিস রোগীদের সব সময় ভাবিয়ে তোলে। ব্লাড সুগার কমানোর জন্য অনেকে ওষুধ সেবন থেকে নানা কিছু করে থাকেন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে বিশেষজ্ঞগণ খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তন, এক্সারসাইজ ও নিয়ম শৃংখলা মেনে চলার কথা বলেন। পাশাপাশি প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রে ওষুধ সেবন অথবা ইনসুলিন নিতে হয়। তবে এবার বিশেষজ্ঞগণ ব্লাড সুগার কমানোর একটি চমত্কার তথ্য দিয়েছেন। বিশেষজ্ঞগণ বলছেন, দৈনিক প্রচুর পরিমাণ পানি পান করলে ব্লাড সুগারের মাত্রা হ্রাস পায়। আর এ তথ্যটি প্রকাশ করেছে ডায়াবেটিস কেয়ার জার্নালে। বিশেষজ্ঞগণ গবেষণায় দেখেছেন যারা প্রতিদিন ১৫ আউন্স বা ২ কাপের কম পানি পান করেন তাদের যারা বেশি পানি পান করেন তাদের অপেক্ষা ব্লাড সুগার বাড়ার ঝুঁকি ৩০ ভাগ বেশি। পানি কম পান করলে কেন ব্লাড সুগার বাড়ে তারও একটি ব্যাখ্যা দিয়েছেন বিশেষজ্ঞগণ। বিশেষজ্ঞগণ বলছেন, ভেসোপ্রেসিন নামক এক ধরনের হরমোন শরীরের হাইড্রেশন নিয়ন্ত্রণ করে। আর যখন পানি কম পান করা হয় তখন শরীরে অধিক মাত্রায় ভেসোপ্রেসিন তৈরি হয়। আর এই বিশেষ হরমোনটি বেশি তৈরি হলে শরীরে পানি শুন্যতাও বাড়ে। যা লিভারকে অধিক সুগার তৈরিতে ভূমিকা রাখে। বিশেষজ্ঞগণের সুপারিশ হচ্ছে মহিলাগণের দৈনিক ৬ থেকে ৯ গ্লাস পানি পান করা উচিত। আর পুরুষদের পানি পানের পরিমাণ হতে হবে খানিকটা বেশি। অর্থাত্ দিনে ৬ থেকে ৮ গ্লাস পর্যন্ত পানি পান করা ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য ভালো।

লেখক : চুলপড়া, এলার্জি, চর্ম ও যৌন রোগ বিশেষজ্ঞ

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৩ মার্চ, ২০২১ ইং
ফজর৫:০৪
যোহর১২:১১
আসর৪:২৪
মাগরিব৬:০৫
এশা৭:১৮
সূর্যোদয় - ৬:১৯সূর্যাস্ত - ০৬:০০
পড়ুন