খালাসের রায় বাতিল করে যাবজ্জীবন
জাসদ নেতা মারফত হত্যা
ইত্তেফাক রিপোর্ট০৩ মার্চ, ২০১৬ ইং
২৫ বছর আগে দায়েরকৃত একটি হত্যা মামলার চূড়ান্ত নিষ্পত্তি করেছে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। কুষ্টিয়ার জাসদ (রব) নেতা মারফত আলী হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত এক আসামির খালাসের হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল মঞ্জুর করেছে আদালত। বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের চার বিচারপতির বেঞ্চ গতকাল বুধবার এক রায়ে আসামি সিরাজ মণ্ডলকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করেছে। আপিল বিভাগের এই রায়ের ফলে আসামিকে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণ করতে হবে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ১৯৯১ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারি জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রার্থী ছিলেন কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান মারফত আলী। সে সময় উত্তরাঞ্চলে কৃষক নেতা হিসেবে পরিচিত ছিলেন তিনি। তিনি ওই সংসদ নির্বাচনে জাসদের (রব) প্রার্থী ছিলেন। নির্বাচনের প্রচারের মধ্যে মিরপুর উপজেলার কুর্শা ইউনিয়নের ইশালমারী মাঠে মারফত আলীকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এ হত্যা মামলায় কুষ্টিয়ার প্রথম অতিরিক্ত দায়রা জজ মো. আইনুল হক ১৯৯৮ সালের ২০ জানুয়ারি সিরাজ মণ্ডলকে মৃত্যুদণ্ড এবং আটজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়। খালাস পায় সাতজন। নিম্ন আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করে আসামিরা। আপিলে হাইকোর্ট ২০০২ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি এক রায়ে সিরাজসহ আট আসামিকে খালাস দেয়। সিরাজের খালাসের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করে রাষ্ট্রপক্ষ। গতকাল ওই আপিল মঞ্জুর করে খালাসের রায় বাতিল করে যাবজ্জীবন দণ্ড দেয় আপিল বিভাগ। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল খোন্দকার দিলীরুজ্জামান।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৩ মার্চ, ২০২১ ইং
ফজর৫:০৪
যোহর১২:১১
আসর৪:২৪
মাগরিব৬:০৫
এশা৭:১৮
সূর্যোদয় - ৬:১৯সূর্যাস্ত - ০৬:০০
পড়ুন