ব্রাজিলে শুল্কমুক্ত সুবিধা চেয়েছে বাংলাদেশ
০৮ ডিসেম্বর, ২০১৬ ইং
ইত্তেফাক রিপোর্ট

ব্রাজিলের বাজারে শুল্কমুক্ত সুবিধা চেয়েছে বাংলাদেশ। একইসঙ্গে দেশটির সঙ্গে এফটিএ (ফ্রি ট্রেড অ্যাগ্রিমেন্ট) স্বাক্ষরেরও প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।

গতকাল বুধবার সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে বাংলাদেশে নিযুক্ত ব্রাজিলের রাষ্ট্রদূত ওয়ানজা চানপস দ্য নবরেগার-এর সঙ্গে এক সৌজন্য সাক্ষাত্ শেষে বাণিজ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের এ কথা জানান।   বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ব্রাজিলের বাজারে বাংলাদেশের তৈরি পণ্যের রপ্তানি বৃদ্ধির প্রচুর সম্ভাবনা রয়েছে। কিন্তু উচ্চ শুল্ক হারের কারণে বাংলাদেশ আশানুরূপ রপ্তানি করতে পাচ্ছে না। ডব্লিউটিও-এর সিদ্ধান্ত মোতাবেক এলডিসিভুক্ত দেশ হিসেবে বাংলাদেশ ব্রাজিলের কাছ থেকে ডিউটি ও কোটা ফ্রি সুবিধা পেতে পারে। তিনি বলেন, বিশ্বের অনেক উন্নত ও উন্নয়নশীল দেশ এ সুবিধা প্রদান করলেও ব্রাজিল এখনো বাংলাদেশকে এ সুবিধা দিচ্ছে না। আমরা সেদেশে পণ্য রফতানির ক্ষেত্রে ডিউটি ফ্রি, কোটা ফ্রি সুবিধা চেয়েছি। এছাড়া তাদের সঙ্গে ফ্রি ট্রেড অ্যাগ্রিমেন্ট (এফটিএ) চুক্তির প্রস্তাব দিয়েছি। আশা করছি, ব্রাজিলের কাছ থেকে আমরা এ সুবিধা পাবো। বাণিজ্যমন্ত্রী জানান, ২০১৫-১৬ অর্থবছরে বাংলাদেশ ব্রাজিলে ১৩ কোটি ৫৬ লাখ ডলারের পণ্য রপ্তানি করেছে, একই সময়ে আমদানি করা হয়েছে ৯৫ কোটি ২৩ লাখ ডলারের পণ্য। বাংলাদেশ ব্রাজিলের বাজারে ডিউটি ও কোটা ফ্রি সুবিধা পেলে এ বাণিজ্য ব্যবধান অনেক কমে আসবে। উচ্চ শুল্কহারের কারণে বাংলাদেশ সেখানে প্রত্যাশা মোতাবেক রপ্তানি করতে পাচ্ছে না।

ব্রাজিলের রাষ্ট্রদূত বলেন, ব্রাজিল বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সহযোগিতা বৃদ্ধি করতে আগ্রহী। বাংলাদেশকে ডিউটি ও কোটা ফ্রি সুবিধা প্রদানের বিষয়ে ব্রাজিল সরকার সহানুভূতির সঙ্গে বিবেচনা করবে। তবে এ বিষয়ে সিদ্ধান্তের জন্য বেশ কিছু আনুষ্ঠানিকতা রয়েছে, এজন্য সময় প্রয়োজন।

বৈঠকে সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা তপন চৌধুরী, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব হেদায়েতুল্লাহ আল মামুন ও অতিরিক্ত সচিব (এফটিএ) মো. শফিকুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

 

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৮ নভেম্বর, ২০২১ ইং
ফজর৫:০৭
যোহর১১:৫১
আসর৩:৩৬
মাগরিব৫:১৫
এশা৬:৩৩
সূর্যোদয় - ৬:২৭সূর্যাস্ত - ০৫:১০
পড়ুন