নারী নির্যাতন বন্ধে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান
২৬ আগষ্ট, ২০১৮ ইং
নারী নির্যাতন বন্ধে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান

নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবসে সমাজতান্ত্রিক মহিলা

ফোরামের সমাবেশ

 ইত্তেফাক রিপোর্ট

২৩তম নারী নির্যাতন প্রতিরোধ (ইয়াসমিন হত্যা) দিবস উপলক্ষে সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের উদ্যোগে গতকাল জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের সভাপতি রওশন আরা রুশো এবং পরিচালনা করেন সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী শম্পা বসু।

সভায় বক্তব্য রাখেন সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টাণ্ডলীর সদস্য সামসুন্নাহার জ্যোত্স্না, সংগঠনের সাংগঠনিক সম্পাদক দিলরুবা নূরী, ঢাকা নগর শাখার সদস্য রুখসানা আফরোজ আশা, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট এর আন্তর্জাতিকতা বিষয়ক সম্পাদক ডা. মনীষা চক্রবর্তী, ঢাকা নগর শাখার সাধারণ সম্পাদক মুক্তা বাড়ৈ।

বক্তারা বলেন, ১৯৯৫ সালের ২৪ আগস্ট ঢাকা থেকে বাড়ি ফেরার পথে পুলিশ কর্তৃক ধর্ষিত ও নিহত হয়েছিল দিনাজপুরের ইয়াসমিন। এর বিরুদ্ধে দিনাজপুরসহ সারাদেশে গড়ে উঠা প্রতিবাদ ও প্রতিরোধ আন্দোলনের স্মরণে প্রতিবছর ২৪ আগস্ট পালিত হয় নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস। ৭ জন সংগ্রামী মানুষের জীবনের বিনিময়ে এবং দেশের সর্বস্তরের মানুষ, সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামসহ বাম-প্রগতিশীল নারী সংগঠনসমূহ, রাজনৈতিক-সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের আন্দোলনের মুখে ইয়াসমিন ধর্ষণ ও হত্যার বিচার কার্যকর হয়।

এরপর কেটে গেছে ২২ বছর। নারী নির্যাতন-ধর্ষণ-হত্যা তো কমেইনি বরং ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। ধর্ষণ, গণধর্ষণ, পিটিয়ে হত্যা, যৌতুকের কারণে হত্যা, এসিডে ঝলসে দেয়া, ইন্টারনেটে ছবি ছড়িয়ে ব্ল্যাকমেইল করা—ইত্যাদি নির্যাতনের ধরন বেড়েছে, দীর্ঘ হয়েছে নির্যাতিতদের মিছিল।

ছয় বছরের শিশু থেকে ষাট বছরের বৃদ্ধা, শিক্ষিত-অশিক্ষিত, ধনী-দরিদ্র, সমতল বা পাহাড়ের আদিবাসী, সংখ্যালঘু-সংখ্যাগুরু কেউই রেহাই পাচ্ছেন না। ঘরে-বাইরে, পথে-ঘাটে, কর্মক্ষেত্রে সর্বত্রই শারীরিক-মানসিকভাবে চলছে এই নির্যাতন।

বক্তাগণ সারাদেশের নারী-পুরুষকে ঐক্যবদ্ধভাবে লড়াইয়ে শামিল হবার আহ্বান জানান যাতে সরকার ধর্ষক-নির্যাতকদের বিচার করতে বাধ্য হয়।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২৬ আগষ্ট, ২০২১ ইং
ফজর৪:২০
যোহর১২:০১
আসর৪:৩৩
মাগরিব৬:২৬
এশা৭:৪১
সূর্যোদয় - ৫:৩৮সূর্যাস্ত - ০৬:২১
পড়ুন