রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুত্ প্রকল্প
রাশিয়ায় প্রশিক্ষিত কর্মীর সংখ্যা ১৪০০ ছাড়িয়ে যাবে
২৬ আগষ্ট, ২০১৮ ইং

বাসস

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুত্ প্রকল্পে চলতি বছরের শেষনাগাদ রাশিয়ায় প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত কর্মীর সংখ্যা এক হাজার ৪০০ অতিক্রম করবে। রাশিয়া এবং বাংলাদেশের মধ্যে স্বাক্ষরিত একটি চুক্তির অধীনে রুসাটম সার্ভিস রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুত্ প্রকল্পের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য এ ধরনের প্রশিক্ষণ কোর্সের আয়োজন করছে। গত শুক্রবার ঢাকায় প্রাপ্ত রসাটমের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।

এতে বলা হয়, রুসাটম রাষ্ট্রীয় কর্পোরেশনের ‘ইলেক্ট্রিক্যাল পাওয়ার’ বিভাগ রুসাটম সার্ভিস চলতি বছরে আরো ৩টি গ্রুপকে প্রশিক্ষণ প্রদান করবে। ফলে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত স্টাফদের সংখ্যা বছরের শেষ নাগাদ এক হাজার ৪০০ অতিক্রম করবে বলে রুসাটম সার্ভিসের মহাপরিচালক ইভগেনি সালকোভ বলেন, ‘যেকোনো শিল্পের জন্য মূল সম্পদ হচ্ছে দক্ষ জনশক্তি। আমাদের প্রতিষ্ঠানের অন্যতম লক্ষ্য পারমাণবিক শক্তি ক্ষেত্রে জনশক্তির প্রশিক্ষণ এবং উন্নয়ন। এ ব্যাপারে আমাদের রয়েছে বিশাল এবং অনন্য অভিজ্ঞতা। সম্পূর্ণ বিশেষায়িত এবং এডভান্সড প্রশিক্ষণ সেবা প্রদানের পাশাপাশি আমরা রুসাটমের বিভিন্ন স্থাপনায় ইন্টার্নশিপের সুযোগও দিয়ে থাকি।’ তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, অর্জিত জ্ঞান ও দক্ষতা কাজে লাগিয়ে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত বাংলাদেশি বিশেষজ্ঞরা রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুেকন্দ্রের দক্ষ, নির্ভরযোগ্য ও নিরাপদ পরিচালনা নিশ্চিত করতে সক্ষম হবেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত সপ্তাহে রাশিয়ার অবনিন্স্ক শহরের রুসাটম টেকনিক্যাল একাডেমিতে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুত্ প্রকল্পের স্টাফদের জন্য শুরু হয়েছে সাড়ে চার মাসব্যাপী ‘গুরুত্বপূর্ণ নির্মাণকাজ ব্যবস্থাপনা’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ কোর্স।

বর্তমান কোর্সটিতে তত্ত্বীয় ও ব্যবহারিক উভয় প্রোগ্রামই অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। তত্ত্বীয় অংশটি সম্পন্ন করার পর অংশগ্রহণকারীরা প্রশাসনিক এবং নির্মাণসামগ্রী, বিশেষ করে বিভিন্ন যন্ত্রপাতির একসেপ্টেন্স এবং স্থাপন বিষয়ে প্রয়োজনীয় জ্ঞান লাভ করবেন। রাশিয়ার অন্যতম একটি পারমাণবিক স্থাপনা- নভোভারোনেঝ পারমাণবিক বিদ্যুেকন্দ্রে তাদেরকে অন-সাইট ব্যবহারিক প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে।

রুসাটম টেকনিক্যাল একাডেমিতে বাংলাদেশ ছাড়াও ইরানের বুহশের, হাঙ্গেরির পাক্স, ফিনল্যান্ডের হানহিকিভি-১ পারমাণবিক বিদ্যুেকন্দ্রের কর্মীরা প্রশিক্ষণ লাভ করেছেন।

বাংলাদেশের একমাত্র পারমাণবিক বিদ্যুত্ প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে রাশিয়ার রুসাটম রাষ্ট্রীয় কর্পোরেশন। প্রকল্পের প্রতিটি ধাপের নির্মাণকাজ অত্যন্ত কঠোরভাবে মনিটর করছে আন্তর্জাতিক আনবিক শক্তি সংস্থা (আইএইএ) এবং বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (বায়েরা)।

ভিভিইআর নকশার রিয়্যাক্টর ভিত্তিক পারমাণবিক বিদ্যুেকন্দ্রের রক্ষণাবেক্ষণ এবং মেরামতের জন্য পূর্ণ সেবা ও প্রয়োজনীয় সামগ্রী সরবরাহ করে থাকে রুসাটম সার্ভিস। এ জাতীয় পারমাণবিক বিদ্যুেকন্দ্রের লাইফ টাইম বৃদ্ধি, সিডিউল অনুযায়ী রক্ষণাবেক্ষণ এবং যন্ত্রপাতির আপগ্রেড ইত্যাদি কাজের জেনারেল কন্ট্রাক্টর হিসেবে চীন, ইরান, বুলগেরিয়া এবং আর্মেনিয়ায় শীর্ষস্থান অধিকার করে রেখেছে প্রতিষ্ঠানটি।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২৬ আগষ্ট, ২০২১ ইং
ফজর৪:২০
যোহর১২:০১
আসর৪:৩৩
মাগরিব৬:২৬
এশা৭:৪১
সূর্যোদয় - ৫:৩৮সূর্যাস্ত - ০৬:২১
পড়ুন