বিদ্যুতের প্রথম স্মার্ট প্রিপেইড মিটার কারখানা হচ্ছে খুলনায়
০৬ অক্টোবর, ২০১৮ ইং
মাহবুব রনি

এবার দেশেই বিদ্যুতের স্মার্ট প্রিপেইড মিটার কারখানা স্থাপনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে সরকার। বাড়তে থাকা প্রিপেইড মিটারের চাহিদা মেটাতে খুলনায় এ কারখানা স্থাপন করা হবে। এর মাধ্যমে বর্তমানে বিদেশ থেকে প্রিপেইড মিটার আমদানির সংখ্যা কমবে।

বিদ্যুত্ বিভাগ সূত্র জানায়, সরকারি সংস্থা ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি (ওজোপাডিকো) এবং চীনা কোম্পানি হেক্সিং ইলেক্ট্রিক্যাল কোম্পানি যৌথভাবে এই প্রিপেইড মিটার তৈরির কারখানা স্থাপন করবে। এতে ৫১ শতাংশ মালিকানা থাকবে ওজোপাডিকোর। বাকি ৪৯ শতাংশের মালিকানা থাকবে হেক্সিংয়ের। কোম্পানিটির অনুমোদিত মূলধন হবে ৫০ কোটি টাকা। এর মধ্যে ২৮ কোটি টাকা জমা দেখানো হবে। এ প্রসঙ্গে ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. শফিক উদ্দিন বলেন, যৌথ কোম্পানি গঠনের জন্য চীনা কোম্পানিটির সঙ্গে শিগগিরই চুক্তি স্বাক্ষর করা হবে। প্রয়োজনীয় অনুমোদন সাপেক্ষে আগামী ১১ অক্টোবর এ চুক্তি সই হতে পারে।

তিনি জানান, চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যেই এ কারখানা স্থাপনের কাজ সম্পন্ন করার লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে। আগামী বছরের শুরুতেই এতে প্রিপেইড মিটার উত্পাদন শুরু হবে। প্রাথমিকভাবে বছরে ৫ লাখ প্রিপেইড মিটার উত্পাদনের লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে। বর্তমানে আমদানিকৃত মিটারের চেয়ে এগুলোর দামও কম পড়বে। সম্প্রতি মন্ত্রিপরিষদ যৌথ কোম্পানি গঠনের মেমোরেন্ডাম অব এসোসিয়েশন এবং আর্টিকেলস অব এসোসিয়েশন অনুমোদন করেছে। ৫ সদস্যের পরিচালনা পর্ষদের মধ্যে তিনটিতে ওজোপাডিকো এবং দুইটিতে হেক্সিং থাকবে।

বর্তমানে দেশে তিন কোটি ১১ লাখ বিদ্যুত্ গ্রাহক রয়েছে। প্রায় ৯০ শতাংশ জনগণ বিদ্যুেসবা পাচ্ছে বলে সরকারি সংস্থাগুলো দাবি করছে। বর্তমানে লক্ষাধিক প্রিপেইড মিটার ব্যবহূত হচ্ছে। পর্যায়ক্রমে সকল গ্রাহককেই প্রিপেইড মিটারের আওতায় আনার পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৬ অক্টোবর, ২০২১ ইং
ফজর৪:৩৬
যোহর১১:৪৭
আসর৪:০৩
মাগরিব৫:৪৫
এশা৬:৫৬
সূর্যোদয় - ৫:৫১সূর্যাস্ত - ০৫:৪০
পড়ুন