নির্যাতিতা হালিমার বাড়িতে আগুনের ঘটনা সত্য
৩১ মে, ২০১৫ ইং
g মহেশপুর (ঝিনাইদহ) সংবাদদাতা

উপজেলার নাটিমা গ্রামের নির্যাতিতা হালিমা বেগমের ঘরবাড়ি পুড়ানোর অভিযোগের ঘটনায় বৃহস্পতিবার বিকালে কোটচাঁদপুর সার্কেল সহকারী পুলিশ সুপার মো. জাহিদ হোসেন পিপিএম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং ঘটনার সত্যতা পেয়েছেন।

নাটিমা গ্রামের হালিমা নামে এক মহিলাকে গ্রামের প্রভাবশালী ব্যক্তিরা গাছে বেঁধে নির্যাতন করে এবং চুল কেটে দেয়। এই ঘটনায় মামলা হলে এর ৫/৬ মাস পর আসামিরা জামিনে মুক্ত হয়ে তাকে গ্রাম থেকে উচ্ছেদ করার উদ্দেশে তার ঘরবাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়। স্থানীয় লোকজন চেষ্টা করে আগুন নিভিয়ে দেয়। ঘটনাটি মহেশপুর থানায় অভিযোগ দিলে মামলাটি আমলে নেয়নি। পরে বাদী মানবাধিকার সংগঠন আরডিসির সহযোগিতায় ঝিনাইদহ জজ কোর্টের লিগ্যাল সাপোর্ট সেন্টারের মাধ্যমে আদালতে মামলা করে। আদালত মামলাটি এজাহার হিসাবে গণ্য করার জন্য নির্দেশ দেয়। আদালতের নির্দেশে মহেশপুর থানায় চলতি বছরের ১২ মে মামলা হলে তদন্তকারী কর্মকর্তা আসামি ধরতে গড়িমশি করে। পরে বাদী সার্কেল এএসপির শরণাপন্ন হলে তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আগুন দেয়ার সত্যতা পান। ঘটনাস্থল পরিদর্শনের সময় ছিলেন মহেশপুর থানার ওসি শাহিদুল ইসলাম শাহিন ও মানবাধিকার সংগঠন আরডিসির নির্বাহী প্রধান আব্দুর রহমান।

সাক্ষীরা জানায়, পূর্ব শক্রতার জের ধরে ঘটনাটি ঘটানো হয়েছে।

কোট চাঁদপুর সার্কেল সহকারী পুলিশ সুপার মো. জাহিদ হোসেন পিপিএম জানান, পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়ার তদন্তকারী কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৩১ মে, ২০২১ ইং
ফজর৩:৪৪
যোহর১১:৫৬
আসর৪:৩৬
মাগরিব৬:৪৪
এশা৮:০৭
সূর্যোদয় - ৫:১১সূর্যাস্ত - ০৬:৩৯
পড়ুন