নওগাঁ বিআরটিএ দালাল চক্রের কাছে জিম্মি!
২৭ আগষ্ট, ২০১৫ ইং
নওগাঁ বিআরটিএ দালাল চক্রের কাছে জিম্মি!
g নওগাঁ প্রতিনিধি

নওগাঁয় গত কয়েক বছর থেকে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) কার্যালয় দালাল চক্রেও কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছে। ওই চক্রের মাধ্যমে অতিরিক্ত টাকা নেয়া হয়। অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও দালালদের যোগসাজশে এখানে আসা সেবা প্রত্যাশীদের হতে হচ্ছে নানা রকম হয়রানির শিকার। টাকা ছাড়া কোন নিবন্ধন হয় না এমনটাই জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা।

নিবন্ধনকারী, দালাল চক্র ও নওগাঁর মোটর সাইকেল শো-রুম আহসান, দ্বীন এমপ্রেস, ন্যাশনাল, নওগাঁ প্যালেস সূত্রে জানা গেছে, ২০০৬ সালের আগে যে গ্রহকরা মোটর সাইকেল কিনেছেন কিন্তু নিবন্ধন করতে পারেননি তাদের কোন আবেদন হবে না বলে জানিয়েছেন বিআরটিএ অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। ওইসব গ্রাহকের কাছ থেকে ৫ থেকে ৭ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়ে নিবন্ধন দেয়া হচ্ছে। এছাড়াও ২০০৮ ও ০৯ সালের জন্য আড়াই হাজার টাকা, ১০ ও ১১ সালের জন্যে দুই হাজার টাকা, ১২ সালের জন্যে দেড় হাজার টাকা এবং ১৩ সালের জন্যে ১ হাজার টাকা নির্ধারণ করে নিবন্ধন বাবদ উেকাচের চেয়ে অতিরিক্ত হাতিয়ে নেয়া হচ্ছে।

মো. মুন্না, মো. সাইদুল ও মাহমুদুল হকসহ আরও তিন দালাল জানান, তারা এখানে অনেক ধরে কাজ করছেন। এখানকার সব কর্মকর্তা-কর্মচারী তাদের পরিচিত। তাই তারা গেলে দ্রুত কাজ হয়ে যায়। মানুষজন ঝামেলা থেকে রেহাই পায়, বিনিময়ে তারা কিছু বকশিস নেন।

নওগাঁ বিআরটিএর উপ-পরিচালক(প্রকৌশলী) সুবীর কুমার সাহা বলেন, এ অফিসে দালাল থাকার কোনো সুযোগ নেই। বাইরে কে কি করে সেটা আমাদের দেখার বিষয় নেই। এখানে আসা সেবা প্রত্যাশীরা কাগজপত্র জমা দিতে এলে আমাদের একজন অফিস সহকারী রয়েছে তিনিই সেগুলো জমা নেন। অন্য কেউ অফিসে আসার সুযোগ নেই। নিয়ম মেনে এখানে সব কাজ করা হয়।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২৭ আগষ্ট, ২০১৯ ইং
ফজর৪:২০
যোহর১২:০১
আসর৪:৩৩
মাগরিব৬:২৫
এশা৭:৪০
সূর্যোদয় - ৫:৩৮সূর্যাস্ত - ০৬:২০
পড়ুন