সুন্দরবন রক্ষা ও বিষ দিয়ে মাছ না ধরার শপথ
২৭ আগষ্ট, ২০১৫ ইং
g শরণখোলা (বাগেরহাট) সংবাদদাতা

বিষ প্রয়োগ করে মত্স্য সম্পদ আহরণ ও বন ধ্বংসকারী আর কোনো কর্মকাণ্ড করবেন না বলে শপথ নিয়েছেন সুন্দরবনের ওপর নির্ভরশীল শরণখোলার জেলে ও মহাজনরা। বুধবার সহস্রাধিক জেলে ও মহাজন স্থানীয় একটি মসজিদের সামনে কোরআন শপথ করে এমন প্রতিজ্ঞা করেন। সকাল ১১টায় পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা স্টেশন ও চাঁদপাই রেঞ্জের ধানসাগর স্টেশনের বন কর্মকর্তাদের যৌথ আয়োজনে ‘সুন্দরবন সুরক্ষা, মত্স্য ও বন্যপ্রাণী রক্ষায় করণীয়’ শীর্ষক এক আলোচনা সভা শেষে এ শপথ অনুষ্ঠিত হয়।

সম্প্রতি বিভিন্ন পত্রিকায় ‘সুন্দরবনে বিষ দিয়ে মত্স্য সম্পদ নিধনের মহোত্সব’ শিরোনামে খবর প্রকাশিত হলে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের টনক নড়ে। একপর্যায় মত্স্য আহরণে জেলেদের অনুমতি (পাস) দিতেও অনীহা প্রকাশ করে বন বিভাগ। পরবর্তীতে বন কর্তৃপক্ষ পেশাজীবীদের জীবন-জীবিকার কথা বিবেচনা করে ওই যৌথ সভার আয়োজন করেন।

ধানসাগর স্টেশনের আওতাধীন উপজেলার উত্তর রাজাপুর এলাকায় অনুষ্ঠিত ওই সভায় বক্তব্য রাখেন শরণখোলা রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষক (এসিএফ) মো. কামাল আহমেদ, ধানসাগর নৌ পুলিশ ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এসআই মামুন, ধানসাগর স্টেশন কর্মকর্তা মো. সুলতান মাহমুদ, স্থানীয় ইউপি সদস্য সিদ্দিকুর রহমান, সাবেক ইউপি সদস্য পান্না মিয়া, সাংবাদিক হুমায়ুন কবির, এমাদুল হক শামীম, মত্স্য ব্যবসায়ী জাকির হোসেন, মো. চানামিয়া, সগির আকন ও ইউনুস ফরাজী। সভা শেষে উত্তর রাজাপুর স্লুইস গেট সংলগ্ন জামে মসজিদ সাক্ষী রেখে কোরআন শপথ করেন তারা।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২৭ আগষ্ট, ২০১৯ ইং
ফজর৪:২০
যোহর১২:০১
আসর৪:৩৩
মাগরিব৬:২৫
এশা৭:৪০
সূর্যোদয় - ৫:৩৮সূর্যাস্ত - ০৬:২০
পড়ুন