সিরাজদিখান সরকারি বিদ্যালয়ে অনিয়ম!
সিরাজদিখান উপজেলার বয়রাগাদি ইউনিয়নের গোবরদী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বিরুদ্ধে শ্রেণিকক্ষে প্রাইভেট পড়ানো, ক্লাশে মোবাইলে কথা বলা ও ক্লাশের প্রতি অমনোযোগিতার অভিযোগ উঠেছে। ফলে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠছেন অভিভাবকরা।

প্রধান শিক্ষিকা জাকিয়া সুলতানা ও সহকারী শিক্ষিকা আসমা আক্তার সকাল থেকে শ্রেণিকক্ষে তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র-ছাত্রীদের বাধ্যতামূলক প্রাইভেট পড়ান। কেউ তাদের কাছে প্রাইভেট পড়তে না চাইলে ফেল করিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। দ্বিতীয় শ্রেণির সামিয়া আক্তার জানায়, আমি আসমা ম্যাডামের কাছে প্রাইভেট পড়ি নাই তাই আমাকে ফেল করানো হয়েছে। একই অভিযোগ করেন শিক্ষার্থীদের অনেক অভিভাবক।

ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন জানান, ক্লাশ চলাকালীন মোবাইল ফোনে প্রেম করার ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে তাদেরকে সতর্ক করা হয়েছিল। এছাড়া তারা প্রায়ই ক্লাশ রুমের জানালা-দরজা খোলা রেখে, বাতি জ্বালিয়ে ও ফ্যান চালু রেখে চলে যায় এমন অভিযোগ পেয়েছি। তাছাড়া ছাত্র-ছাত্রীদের জাতীয় সঙ্গীত ও শরীরচর্চা করানো হয় না। আবার স্কুল ছুটি শেষে জাতীয় পতাকা না নামিয়ে তারা চলে যান। এ ব্যাপারে সিদ্ধান্তের জন্য মিটিং ডেকেছি। 

প্রধান শিক্ষক জাকিয়া সুলতানা বলেন, আমি আর প্রাইভেট পড়াবো না। দয়া করে আপনারা এ ব্যাপারে কিছু লিখবেন না। অন্যান্য বিষয় সব উপজেলা শিক্ষা অফিসার স্যার জানেন।

উপজেলা শিক্ষা অফিসার বেলায়েত হোসেন বলেন, ম্যানেজিং কমিটির কেউ আমাকে এ বিষয় জানায়নি। এ ধরনের অনিয়ম হলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৮ আগষ্ট, ২০১৯ ইং
ফজর৪:০৯
যোহর১২:০৫
আসর৪:৪১
মাগরিব৬:৪০
এশা৭:৫৯
সূর্যোদয় - ৫:৩১সূর্যাস্ত - ০৬:৩৫
পড়ুন