নালিতাবাড়ীতে ভূমি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ
শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার নন্নী-পোড়াগাঁও ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তা এসএমএ মামুনের বিরুদ্ধে জমি খারিজের নামে লক্ষাধিক টাকা আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এছাড়াও বকেয়া খাজনা আদায় ও জমি খারিজের নামে পাহাড়ি মানুষজনের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা ঘুষ গ্রহণেরও অভিযোগ উঠেছে। এছাড়া ওই কর্মকর্তার দ্বারা পাহাড়ের সাধারণ মানুষজন হয়রানির শিকার বলে অভিযোগ রয়েছে।

রৌশনরা বেগম নামের এক গৃহিণী জেলা প্রশাসক বরাবর লিখিত অভিযোগে জানান, উপজেলার পোড়াগাঁও ইউনিয়নের বুরুঙ্গা মৌজার ২ একর ২১ শতাংশ জমি নাম খারিজ (মিউটেশন) করতে তিনি স্বামী আলহাজ আছির উদ্দিনকে নিয়ে ৭ মাস আগে নন্নী-পোড়াগাঁও ইউনিয়ন ভূমি অফিসে যান। এসময় ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তা এসএম মামুন বকেয়া খাজনা ও নাম খারিজ বাবদ এক লাখ টাকা দাবি করেন। দাবিকৃত টাকা পরিশোধের কিছুদিন পর আরও ৫০ হাজার টাকা দাবি করেন। একপর্যায়ে ৩৫ হাজার টাকায় তা রফা হয়। কিন্তু সব টাকা পরিশোধের পরও নাম জারিকৃত জমির কোনো প্রকার খাজনা আদায়ের রশিদ বুঝিয়ে দেননি। এমতাবস্থায় জমির মালিক খোঁজ-খবর নিয়ে জানতে পারেন খারিজের জন্য সর্বমোট ৭ হাজার ১২৯ টাকা ব্যয় হয়েছে। বাকি টাকা ওই কর্মকর্তা আত্মসাত করেছেন। ঘটনা জানার পর বাকি টাকার কিছু অংশ ফেরত চাইলে উল্টো সরকারি খাজনা বকেয়া রাখার দায়ে তাকে জেল খাটানোর হুমকি দেন ওই ভূমি কর্মকর্তা।

জেলা প্রশাসক ডাক্তার এএম পারভেজ রহিম লিখিত অভিযোগ প্রাপ্তির বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, তদন্তের জন্য অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রাজস্বকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৮ আগষ্ট, ২০১৯ ইং
ফজর৪:০৯
যোহর১২:০৫
আসর৪:৪১
মাগরিব৬:৪০
এশা৭:৫৯
সূর্যোদয় - ৫:৩১সূর্যাস্ত - ০৬:৩৫
পড়ুন