হুইপ আতিক ও আওয়ামী লীগ প্রার্থীকে শো-কজ
০১ ডিসেম্বর, ২০১৬ ইং
জেলা পরিষদ নির্বাচন

g শেরপুর প্রতিনিধি

শেরপুর জেলা পরিষদ নির্বাচনের আচরণ বিধিমালা লংঘনের অভিযোগে  সরকার দলীয় হুইপ আতিউর রহমান আতিক এবং আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী অ্যাডভোকেট চন্দন কুমার পালকে শো-কজ করা হয়েছে। শেরপুরের রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক ডা. এএম পারভেজ রহিম সোমবার সন্ধ্যায় এ শো-কজ নোটিস প্রদান করেন। কেন তাদের বিরুদ্ধে জেলা পরিষদ নির্বাচনের আচরণ বিধিমালা অনুয়ায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না- তা আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ওই নোটিসের মাধ্যমে জানতে চাওয়া হয়েছে। নির্বাচনের আচরণ বিধিমালা লংঘনের শো-কজ নোটিসের সঙ্গে সোমাবার দুইটি দৈনিকে এ সংক্রান্তে প্রকাশিত রিপোর্ট সংযুক্ত করে দেয়া হয়েছে। রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক ডা. এএম পারভেজ রহিম এ শো-কজ নোটিস প্রদানের সত্যতা সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় নিশ্চিত করেছেন।

শেরপুর সদর উপজেলা নির্বাচন অফিসার মো. মোজাম্মেল হক সোমবার সন্ধ্যায় ওই শো-কজ নোটিস হুইপ আতিউর রহমান আতিক এবং আওয়ামী লীগের জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান প্রার্থী অ্যাডভোকেট চন্দন কুমার পালের কাছে পৌঁছে দিয়েছেন। ওই নির্বাচন অফিসার শো-কজ নোটিস পৌঁছে দেয়ার কথা নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, দলের মনোনয়ন পাওয়ার পর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট চন্দন কুমার পাল গত রবিবার দুপুরে ঢাকা থেকে শেরপুর আসার পথে নেতা-কর্মীরা কমপক্ষে ৫ শতাধিক মোটর সাইকেল ও প্রাইভেট কারসহ অন্যান্য যানবাহন নিয়ে শো-ডাউন করে তাকে নিয়ে জেলা শহরে প্রবেশ করেন। একই সময়ে জেলার পৃথক  স্থানে তিনটি সমাবেশ করেন। শো-ডাউনের সময় শেরপুর—১ আসনের এমপি জাতীয় সংসদের হুইপ আতিউর রহমান আতিক তার পতাকাবাহী গাড়ি নিয়ে অংশগ্রহণ করেন এবং বক্তব্য রাখেন। মোটর সাইকেলসহ অন্যান্য যানবাহন নিয়ে শো-ডাউন করার সময় শেরপুর-ঢাকা মহাসড়কের যানবাহন চলাচলে বিঘ্ন ঘটে। এসময় শো-ডাউনকারী এক  মোটর সাইকেল আরোহী আহত হয়।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১ নভেম্বর, ২০২১ ইং
ফজর৫:০৪
যোহর১১:৪৮
আসর৩:৩৫
মাগরিব৫:১৪
এশা৬:৩১
সূর্যোদয় - ৬:২৪সূর্যাস্ত - ০৫:০৯
পড়ুন