পিরোজপুর জেলা পরিষদ নির্বাচন
আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে আওয়ামী লীগ প্রার্থীকে কারণ দর্শানোর নোটিস
পিরোজপুর জেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী অধ্যক্ষ শাহ আলমের (আনারস প্রতীক) বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করায় জেলা নির্বাচন অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মঙ্গলবার দুপুরে কারণ দর্শানোর নোটিস দিয়েছে। 

মঙ্গলবার (২০ ডিসেম্বর) পিরোজপুরের কাউখালীতে চেয়ারম্যান প্রার্থী অধ্যক্ষ শাহ আলমের সমর্থনে থানার সামনে প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির মাঠে প্যান্ডেল করে নির্বাচনী জনসভা করেছেন। এ ঘটনায় তিনি নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মহিউদ্দিন মহারাজ (কাপ পিরিচ প্রতীক) এবং আব্দুল্লাহ আল মাসুদ (চশমা প্রতীক) এর অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত করে কারণ দর্শানোর নোটিস দেন।

আচরণবিধি লঙ্ঘনের ব্যাপারে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ আরিফুর বলেন, তিনি অভিযোগ পেয়ে তদন্তের মাধ্যমে সত্যতা নিশ্চিত করে গত মঙ্গলবারই অধ্যক্ষ মোঃ শাহ আলমকে কারণ দর্শানোর নোটিস করা হয়।

এ দিকে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মহিউদ্দিন মহারাজ অভিযোগ করে বলেন, কাউখালীতে থানার সামনে প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির মাঠে প্যান্ডেল করে নির্বাচনী জনসভা করেছেন। সভায় মঠবাড়িয়া, ভাণ্ডারিয়া এবং স্বরূপকাঠী থেকে নেতা-কর্মীরা আনারস মার্কার সমর্থনে মিছিল এবং শোডাউন করে সভায় যোগ দিয়েছে।

তিনি আরো বলেন, নির্বাচন আচরণবিধিতে সরকারি ডাকবাংলোসহ কোনো সরকারি প্রতিষ্ঠান ব্যবহার করতে পারবে না, কিন্তু প্রার্থীসহ আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ জেলা পরিষদের ডাকবাংলোতে অবস্থান করেন। এছাড়া সমাবেশ শেষে দুপুরে কাউখালী সরকারি বালক বিদ্যালয়ে প্রায় পাঁচ শতাধিক নেতা-কর্মী ও জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে মধ্যাহ্ন ভোজে অংশ নেয়।

 

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২৩ নভেম্বর, ২০২১ ইং
ফজর৫:১৭
যোহর১১:৫৮
আসর৩:৪২
মাগরিব৫:২১
এশা৬:৩৮
সূর্যোদয় - ৬:৩৭সূর্যাস্ত - ০৫:১৬
পড়ুন