একটা ঘরের জন্য বৃদ্ধা সালেহার মিনতি
গৌরনদী (বরিশাল) সংবাদদাতা১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭ ইং
একটা ঘরের জন্য বৃদ্ধা সালেহার মিনতি
শুধু একখানা ঘর পাওয়ার আশায় দীর্ঘদিন যাবত্ এলাকার সংসদ সদস্য থেকে শুরু করে বিত্তবানদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন ৭৫ বছরের বৃদ্ধা সালেহা বেগম। সবার কাছে তার মিনতি, আপনারা মোর স্বামীর পোতায় একটা ঘর তুইল্যা দেন। মুই স্বামীর পোতায় মরতে চাই। কিন্তু তার মিনতি ও দুঃখ-কষ্টের কাহিনি কেউ শোনে না।

সালেহার স্বামীর ভিটা খালি পড়ে থাকলেও বসতঘর নেই। এ কারণে দ. গোবর্ধন গ্রামের আ. গনি মিরের পরিত্যক্ত একটি তুলার মিলে মানসিক প্রতিবন্ধী মেয়ে রেখা এবং সাজ্জাত ও সাব্বির নামে দুই নাতিকে নিয়ে তিন বছর যাবত্ মানবেতর জীবনযাপন করছেন বৃদ্ধা সালেহা বেগম। একমাত্র তার ভিক্ষার আয়ে চলে নাতিদের লেখাপড়া ও সংসারের যাবতীয় খরচ।

প্রতিদিন সকালে ভিক্ষার ঝুলি হাতে বের হন, ফিরতে হয় দুপুরের পরপরই। কারণ রান্নাসহ সংসারের যাবতীয় কাজ করতে হয় সালেহাকে। মানসিক প্রতিবন্ধী রেখা উত্পাত করে, তাই তাকে মিলের খুঁটির সঙ্গে শিকল দিয়ে বেঁধে রেখেছেন। কিন্তু আর পারছেন না, নানা রোগে-শোকে তিনি আজ বড়ই ক্লান্ত। স্বামীর ভিটায় ফিরে যেতে চান তিনি।

সালেহা বেগম জানান, একখানা ঘরের লাইগ্যা মুই এমপি, চেয়ারম্যান হগ্গলের ধারে ঘুরছি। হেরা মোর কতা হোনে না। একটি ঘর পাওয়ার আশায় তিনি প্রধানমন্ত্রীসহ বিত্তবানদের কাছে জোর দাবি জানিয়েছেন।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২১ ইং
ফজর৫:১৬
যোহর১২:১৩
আসর৪:১৭
মাগরিব৫:৫৭
এশা৭:১০
সূর্যোদয় - ৬:৩২সূর্যাস্ত - ০৫:৫২
পড়ুন