আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে চরমোনাইর মাহফিল সমাপ্ত
বরিশাল অফিস১১ মার্চ, ২০১৮ ইং
আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে চরমোনাইর মাহফিল সমাপ্ত
বিশ্ব মানবতার মুক্তি, দেশ-জাতির উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি ও সমগ্র মুসলিম উম্মাহর কল্যাণ কামনায় আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্মীয় সমাবেশ চরমোনাই’র তিন দিনব্যাপী বার্ষিক ওয়াজ মাহফিল গতকাল শনিবার সমাপ্ত হয়েছে। লাখ লাখ মুসল্লির উপস্থিতিতে আমিরুল মুজাহিদীন পীর সাহেব হয়রত মাওলানা সৈয়দ মুফতি মোঃ রেজাউল করিম আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করেন। সকাল পৌনে ৯টায় ১৫ মিনিটব্যাপী মুনাজাতে পীর সাহেব মানবতার কল্যাণে মহান আল্লাহর রহমত কামনা করেন। তিনি বিশ্বের মুসলিম উম্মার শান্তি ও নিরাপত্তার জন্য আল্লাহর নিকট দোয়া কামনা করেন। মোনাজাত চলাকালে ‘আমিন-আমিন’ ধ্বনিতে প্রায় ৫ বর্গ কিলোমিটার এলাকা প্রকম্পিত হয়ে উঠে। আল্লাহ’র কৃপা লাভের আশায় মুসল্লিদের গগনবিদারী কান্নায় এ সময় কীর্তনখোলা প্রান্তর এক পবিত্র পরিবেশে রূপ নেয়। মোনাজাতে মহান আল্লাহর কাছে দুই হাত তুলে কেঁদে কেঁদে দোয়া করেন মুসল্লিরা। তারা সকল পাপ ও অন্যায় থেকে মুক্তির জন্য কাকুতি-মিনতি করেন। দেশ-জাতি-মানবতার কল্যাণ ও সমৃদ্ধি চেয়ে সত্ জীবন-যাপনের জন্য আল্লাহর রহমত কামনা করেন। পীর সাহেব বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের জন্য দোয়া করেন। এই সময়ে কীর্তনখোলা তীরে ও নদীতে থাকা নৌ-যানগুলোতে এক অভিনব দৃশ্যের অবতারণা হয়।

আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে গতকাল নতুন করে আরো মুসল্লি সেখানে জড়ো হন। ভোরের আলো ফোটার সঙ্গে সঙ্গেই কীর্তনখোলা পাড়ি দিয়ে লাখ লাখ মুসল্লি সেখানে জড় হতে থাকেন। 

আখেরি মোনাজাতের পূর্বে বয়ানকালে পীর সাহেব মাওলানা সৈয়দ রেজাউল করিম বলেন, নিজের মধ্য থেকে বড়ত্ব কমাতে হবে।

দেশ-বিদেশের ২৫ লক্ষাধিক মুসল্লি এই আখেরি মোনাজাতে অংশগ্রহণ করেন। মাহফিল কর্তৃপক্ষের নিজস্ব ওয়েব সাইটের মাধ্যমে সরাসরি মোনাজাত সমপ্রচারের ফলে বিশ্বের বিভিন্ন স্থান থেকে কোটি কোটি মানুষ পরোক্ষভাবে মোনাজাতে শরিক হতে পেরেছেন।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১১ মার্চ, ২০১৯ ইং
ফজর৪:৫৬
যোহর১২:০৯
আসর৪:২৭
মাগরিব৬:০৯
এশা৭:২১
সূর্যোদয় - ৬:১১সূর্যাস্ত - ০৬:০৪
পড়ুন