বেতাগীতে ‘মুজিব কিল্লা’ নির্মাণের কোনো উদ্যোগ নেই
১১ মার্চ, ২০১৮ ইং

বেতাগী (বরগুনা) সংবাদদাতা

ঘূর্ণিঝড়প্রবণ এলাকা হিসেবে বেতাগীতে  ‘মুজিব কিল্লা’ নির্মাণের জন্য এখনো কোনো উদ্যোগ নেই। ফলে ক্ষীণ হয়ে গেছে এ প্রকল্পের কাজ। শনিবার উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে জাতীয় দুর্যোগ প্রস্তুতি দিবস পালিত হলেও এ উপজেলাবাসীর পিছিয়ে পড়ার উপক্রম হয়েছে দুর্যোগ মোকাবিলায়।

১৯৭২ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ‘মুজিব কিল্লা’ নির্মাণ করা হয়। এর ৪২ বছর পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ‘২০১৭ সালের নভেম্বর মাসে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয় পরিদর্শনকালে পুনরায় ‘মুজিব কিল্লা’ নির্মাণে উদ্যোগ গ্রহণের নির্দেশনা দেন। সংশ্লিষ্ট বিভাগের গাফিলতির কারণেই প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়নে অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়েছে এমনই অভিযোগ ইউপি চেয়ারম্যানের।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর  নির্দেশনা মোতাবেক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদফতরের মো. রিয়াজ আহম্মেদ অতিরিক্ত সচিব ও মহাপরিচালক স্বাক্ষরিত ওই পত্রে ১৯ অক্টোবর ‘২০১৭ তারিখের মধ্যে বিশেষ বাহক মারফত প্রস্তাব দেওয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়। ওই নির্দেশনা অনুসারে ১০-১০-২০১৭ তারিখ বরগুনা জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা দীপঙ্কর দাশ এবং ২১-১১-২০১৭ তারিখ বেতাগী উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয় থেকে ‘মুজিব কিল্লা’ নির্মাণে জমি চিহ্নিত করে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসের মাধ্যমে উপজেলার ৭টি ইউনিয়ন পরিষদের  চেয়ারম্যানের নিকট পত্র প্রেরণ করা হয়। কিন্তু অদ্যাবধি এর কোনো অগ্রসরতা নেই।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা জিএম ওয়ালী উল ইসলাম জানান, ‘মুজিব কিল্লা’ নির্মাণে কমপক্ষে ১.৫০ একর খাস জমির প্রয়োজনীয়তা থাকায় কোনো ইউনিয়নে ওই পরিমাণের খাস জমি না পাওয়ায় চেয়ারম্যানরা কোনো প্রস্তাবনা দিতে পারেননি। মোকামিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মাহাবুব আলম সুজন অবশ্য এ সংকটের কথা অস্বীকার অভিযোগ করেন, ‘মুজিব কিল্লা’ নির্মাণে যে পরিমাণ জমির প্রয়োজন ওই ইউনিয়নে তা রয়েছে কিন্তু উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার তত্পরতার অভাবে এ বিষয় আগানো হয়নি। ওই কর্মকর্তা চিঠি দিয়েই শেষ। পরবর্তীতে তার আর কোনো কার্যক্রম নেই। স্থানীয়রা মনে করেন, ‘মুজিব কিল্লা’ নির্মাণের সরকারি উদ্যোগ বাস্তবায়িত না হলে দুর্যোগ মোকাবিলায় পিছিয়ে পড়বে  উপকূলীয় এ উপজেলাবাসী।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. রাজীব আহসান জানান, যতটুকু আমি জানি ‘মুজিব কিল্লা’ নির্মাণে যে পরিমাণ জমির প্রয়োজন তা এখানে পাওয়া যায়নি। এ সংকটের কারণেই প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস সংশ্লিষ্টদের নিকট কোনো প্রস্তাবনা পাঠাতে পারেনি।

 

 

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১১ মার্চ, ২০১৯ ইং
ফজর৪:৫৬
যোহর১২:০৯
আসর৪:২৭
মাগরিব৬:০৯
এশা৭:২১
সূর্যোদয় - ৬:১১সূর্যাস্ত - ০৬:০৪
পড়ুন