পিরোজপুর ঝিনাইদহ ও কুমিল্লায় অগ্নিকাণ্ডে ব্যাপক ক্ষতি
১১ মার্চ, ২০১৮ ইং
ইত্তেফাক ডেস্ক

দেশের বিভিন্ন স্থানে অগ্নিকাণ্ডে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভস্মীভূতসহ ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এ বিষয়ে প্রতিনিধি ও সংবাদদতাদের পাঠানো খবর।

পিরোজপুর :শহরের কলেজ রোড এলাকায় গতকাল শনিবার ভোরে ভয়াবহ এক অগ্নিকাণ্ডে ১৫টি স্থাপনা সম্পূর্ণ পুড়ে গেছে। এর মধ্যে সাতটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও আটটি বসতঘর রয়েছে। অগ্নিকাণ্ডে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ প্রায় কোটি টাকা বলে ক্ষতিগ্রস্তরা দাবি করেছেন। রাত সাড়ে তিনটার দিকে বৈদ্যুতিক শট সার্কিটের মাধ্যমে আগুনের সূত্রপাত ঘটে বলে ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা যায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, পাশেই একটি পেট্রোলের দোকান থাকায় আগুন মুহূর্তের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে তা ভয়াবহ রূপ নেয়। অল্প সময়ের মধ্যেই আগুনে ঐ পেট্রোলের দোকানসহ একটি করাতকল, কম্পিউটারের দোকান, টেইলারের দোকানসহ সাতটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও আটটি বসতঘর আগুনে পুড়ে যায়।  খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের পিরোজপুরের দুইটি ইউনিটি ও নাজিরপুর উপজেলার একটি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

ঝিনাইদহ :ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ঘোড়শাল ইউনিয়নের কুশাবাড়ীয়া গ্রামের ছায়ানীড় সরকারি আবাসন প্রকল্পে আগুনে ১০টি ঘর পুড়ে ছাই হয়েছে। শুক্রবার এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ক্ষতিগ্রস্তরা হলেন, আবাসনের বাসিন্দা ইমাদুল হক, সমির উদ্দীন, কিতাব উদ্দীন, আতর আলী, চুন্নু বিশ্বাস, জামেলা খাতুন, রূপসা খাতুন ও মনোয়ারা খাতুন।

 ঝিনাইদহ ফায়ার স্টেশনের সহকারী উপ-পরিচালক রফিকুল ইসলাম জানান, বিকালে ওই আবাসন প্রকল্পের একটি ঘরে বিদ্যুতিক সর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। মুহূর্তে আগুন পাশের ঘরগুলোতে ছড়িয়ে পড়ে। পুড়ে যায় আবাসনের একটি ব্যারাকের ১০টি ঘর ও আসবাবপত্র। খবর পেয়ে ঝিনাইদহ ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এতে আবাসনের ১০টি পরিবার  আশ্রয়হীন হয়ে পড়েছে। 

মনোহরগঞ্জ (কুমিল্লা) :কুমিল্লার মনোহরগঞ্জে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে সাতটি ঘর ভস্মীভূত হয়েছে। এতে প্রায় ৩০ লক্ষাধিক টাকা ক্ষতির খবর পাওয়া গেছে। শুক্রবার রাতে উপজেলার কাশিপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, শুক্রবার রাতে উপজেলার কাশিপুর বাজার সংলগ্ন হাজী মহব্বত আলীর বাড়িতে দুলালের ঘরে বৈদ্যুতিক সর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়ে দুলালের ঘরে থাকা গ্যাস সিলিন্ডার পর্যন্ত আগুন পৌঁছালে তা বিস্ফোরিত হয়ে মুহূর্তের মধ্যেই ভয়াবহ রূপ ধারণ করে। আগুনের লেলিহান শিখা একে একে পুড়ে ছাই করে দেয় পাশে থাকা শাহজাহান, আনোয়ার ও মামুনের বসতঘরসহ সাতটি ঘর। ধ্বংস্তূপে পরিণত হয় অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে যাওয়া ঘরগুলো। খবর পেয়ে লাকসাম ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণ করে।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১১ মার্চ, ২০১৯ ইং
ফজর৪:৫৬
যোহর১২:০৯
আসর৪:২৭
মাগরিব৬:০৯
এশা৭:২১
সূর্যোদয় - ৬:১১সূর্যাস্ত - ০৬:০৪
পড়ুন