কটিয়াদীতে গ্রেফতার আতঙ্কে ২২ দিন ধরে পুরুষশূন্য গ্রাম
২৬ আগষ্ট, ২০১৮ ইং
কটিয়াদী ( কিশোরগঞ্জ ) সংবাদদাতা

কটিয়াদী উপজেলার মসূয়া ইউনিয়নের কাজিরচর গ্রামে একটি চুরির ঘটনায় জনতার ধাওয়া খেয়ে পালাতে গিয়ে ডোবায় পড়ে যুবকের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে গ্রেফতার আতঙ্কে ২২ দিন ধরে পুরুষশূন্য গ্রাম। সরেজমিন পরিদর্শনে মহিলারা জানান, এবারের  ঈদ আনন্দ থেকে তারা বঞ্চিত হয়েছে। বাড়িতে পুরুষ মানুষ না থাকায় বহু ঘরে কোরবানি করা হয়নি। পাশাপাশি কৃষিকাজে দেখা দিয়েছে চরম দীনতা। জমি চাষাবাদ ও গবাদিপশু পালনেও ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। গত ৬ আগস্ট চোর সন্দেহে জনতার ধাওয়া খেয়ে উক্ত গ্রামের মন্টু আকন্দের ছেলে নাজির আকন্দ (৩২) নামে এক যুবক ডোবায় পড়ে মারা যায়। ঘটনার দিন গভীর রাতে কাজিরচর নেছারিয়া দাখিল মাদ্রাসার পাশে মোঃ আলমগীরের মুদি দোকানে দু’যুবক তালায় হাত দিলে দোকানের মালিক তা দেখে ফেলেন। পরে চোর চোর বলে চিত্কার করলে গ্রামবাসী জড়ো হয়ে তাদের ধাওয়া করে।

তারা দৌড়ে পালানোর সময় অন্ধকারে পরিত্যক্ত পোল্ট্রি খামারের পিলারে বাধাগ্রস্ত হয়ে ডোবায় পড়ে যায় নাজির। জনতা রাকিব নামে একজনকে আটক করলেও নাজিরের সন্ধান পাওয়া যায়নি। পরদিন ভোরে এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিরা বৈঠকে বসলে আটক রাকিব জানায়, তার বাড়ি ভৈরব উপজেলায়। নাজিরের সাথে সে বেড়াতে এসেছে। বৈঠকে সবার উপস্থিতিতে মন্টু আকন্দের কাছে বেড়াতে আসা রাকিবকে বুঝিয়ে দেয়া হয়। ঐদিন সকাল ৯টার দিকে এলাকার লোকজন ডোবায় নাজিরের লাশ দেখে কটিয়াদী মডেল থানায় খবর দেয়।

পরে নিহত নাজিরের পিতা বাদী হয়ে মুদি দোকানি আলমগীরসহ তিনজন ও অজ্ঞাত আরো ৮/১০ জনের বিরুদ্ধে কটিয়াদী মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২৬ আগষ্ট, ২০২১ ইং
ফজর৪:২০
যোহর১২:০১
আসর৪:৩৩
মাগরিব৬:২৬
এশা৭:৪১
সূর্যোদয় - ৫:৩৮সূর্যাস্ত - ০৬:২১
পড়ুন