সা ক্ষা ত্ কা র
‘আস্থার জায়গা থেকে দর্শকরা হতাশ হবেন না’
৩০ এপ্রিল, ২০১৮ ইং
‘আস্থার জায়গা থেকে দর্শকরা হতাশ হবেন না’

চঞ্চল চৌধুরী। ছোটপর্দা বা বড়পর্দা তিনি মানেই এখন দর্শকদের বাড়তি আগ্রহ। তাই সামনে ঈদকে কেন্দ্র করে কাজের চাপ বেড়েছে অনেক। এদিকে, ‘দেবী’ নিয়েও আলোচনায় তিনি। কবে আবার বড়পর্দায় দেখা যাবে ‘আয়নাবাজি’র এই হিরোকে। সাম্প্রতিক ব্যস্ততা ও নতুন চলচ্চিত্র নিয়ে কথা বললেন বিনোদন প্রতিদিনের সাথে। সাক্ষাত্কার নিয়েছেন মোস্তাফিজ মিঠু

কেমন আছেন?

ভালো আছি। ব্যস্ততা বেড়েছে অনেকটা। সামনে ঈদ, সেই চাপটা শুরু হয়েছে।

তাহলে শুরুতে ব্যস্ততা প্রসঙ্গে বলুন?

এবার ঈদে ৬টি ৬খণ্ডের ধারাবাহিক নাটকে কাজ করছি। ধারাবাহিকগুলো নির্মাণ করেছেন মাসুদ সেজান, সাগর জাহান, গোলাম সরওয়ার দুদুল, মিলন ভট্টাচার্য। এছড়া ১০-১২টি ধারাবাহিক নাটক করছি। পাশাপাশি নিয়মিত ধারাবাহিকগুলো তো করছি। ৩-৪টি ধারাবাহিক নাটক চলছে।

অনেকগুলো নাটক নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন। এতগুলো কাজ করতে সময় ঠিক রাখেন কীভাবে?

পরিকল্পনা ছাড়া আমি কোনো কাজ করি না। কাজগুলো সময়মতো ভাগ করে নিই। এতে করে অনেক থাকলেও সেটি আমি মেইন্টেইন করতে পারি।

সম্প্রতি ‘দেবী’ ছবির ট্রেলর রিলিজ পেলো। এরপর থেকে ট্রেলরটি বেশ আলোচনা তৈরি করেছে। ‘দেবী’র একজন হিসেবে আপনার মন্তব্য জানতে চাচ্ছি?

আমি মুগ্ধ দর্শকদের সাড়া দেখে। হুমায়ূন আহমেদের গল্পের ওপর সবার এমনিতেই একটি ভালোবাসা আছে। মিসির আলী অনেক জনপ্রিয় একটি চরিত্র। এখানে আমি ‘মিসির আলী’ চরিত্রে অভিনয় করেছি। আমি চেষ্টা করেছি ভালো কিছু করার। এখন বাকিটা ছবিটি মুক্তি পেলে বোঝা যাবে। যদিও এখনো মুক্তির তারিখ ঘোষণা হয়নি। তবে খুব শিগগিরই ছবিটি মুক্তি পাবে।

দর্শকদের চোখে এখনো ‘আয়নাবাজি’র চঞ্চলের জনপ্রিয়তা রয়েছে।  এবার ‘মিসির আলী’ চরিত্র, প্রত্যাশার জায়গা কতটুকু পূরণ হবে মনে করেন?

আমি একটি কাজ খুব যত্ন করে করি। সেজন্য আমার প্রতি দর্শকদের একটা আস্থার জায়গা রয়েছে। তাই এটুকু বলতে পারি আস্থার জায়গা থেকে দর্শকরা হতাশ হবেন না। পরিচালক খুব যত্ন করে ছবিটি নির্মাণ করেছেন। আর হুমায়ূন আহমেদের গল্পের তো জাদু রয়েছে।

ছোটপর্দা ও বড়পর্দা দু’জাগাতে সমান জনপ্রিয় আপনি। নিজের এই জনপ্রিয়তাকে কীভাবে ব্যাখ্যা করবেন?

আমি গল্প বাছাইয়ের ক্ষেত্রে সবার আগে নজর দিই। কারণ এখন পর্যন্ত প্রায় ২০০ ছবির প্রস্তাব আমি পেয়েছি। করেছি মাত্র ৫টি। গদবাঁধা কাজ কখনো করতে চাই না। চলচ্চিত্র করতেই হবে বলে করি না। এতটুকু আমি বুঝে কাজ করি এবং যত্ন নিয়ে করি। তার কারণে বড়পর্দাতেও দর্শক আমাদের গ্রহণ

করেছেন।

 

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৩০ এপ্রিল, ২০২১ ইং
ফজর৪:০৪
যোহর১১:৫৬
আসর৪:৩২
মাগরিব৬:২৯
এশা৭:৪৭
সূর্যোদয় - ৫:২৫সূর্যাস্ত - ০৬:২৪
পড়ুন