স্থল সীমান্ত চুক্তি বার্লিন প্রাচীর পতনের সমান: মোদী
ইত্তেফাক রিপোর্ট৩১ মে, ২০১৫ ইং
স্থল সীমান্ত চুক্তি বার্লিন প্রাচীর পতনের সমান: মোদী
বাংলাদেশ-ভারত স্থল সীমান্ত চুক্তি বাস্তবায়নে ভারতের সংবিধান সংশোধনী বিল পার্লামেন্টে পাস হওয়ায় দারুণ উচ্ছ্বসিত ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সে কথা প্রকাশ পেয়েছে তার নিজের বক্তবেই। এই স্থল সীমান্ত চুক্তিকে তিনি তুলনা করেছেন বার্লিনের প্রাচীরের পতনের সঙ্গে। স্থানীয় একটি পত্রিকাকে দেয়া এক সাক্ষাত্কারে মোদী এ কথা বলেন। এই সীমান্ত চুক্তি বিল পাসের পরই আগামী ৬ জুন দুই দিনের সফরে ঢাকা আসছেন তিনি।

দ্য ট্রিবিউনকে দেয়া সাক্ষাত্কারে নরেন্দ্র মোদী বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে দীর্ঘ সময় ধরে ঝুলে থাকা স্থল সীমান্ত চুক্তি আমরা নিষ্পত্তি করেছি। সকল পক্ষের আস্থা নিয়ে এটা করা হয়েছে। মোদী বলেন, গণমাধ্যমগুলো অনুধাবন করতে পারেনি আসলে কত বড় অর্জন এটি। এটি বিশ্বের অন্য কোথাও হলে বার্লিন প্রাচীর পতনের মতো বড় উদাহরণ বলেই উল্লেখ করা হতো। 

ট্রিবিউনকে দেয়া সাক্ষাত্কারে মোদী আরো বলেন,  আমাদের উন্নয়ন ভাগাভাগি করার বার্তা এখানে বাস্তবায়িত হওয়ায় সব প্রতিবেশীদের মানসিকতায় নাটকীয় পরিবর্তন এসেছে। এছাড়া এখানে বাস্তবিক ও ফলপ্রসূ কূটনীতিও রয়েছে।

প্রসঙ্গত, দুই দেশের মধ্যে ৪১ বছর ধরে ঝুলে থাকা স্থল সীমান্ত চুক্তি বিল চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে ভারতের পার্লামেন্টের দুই কক্ষে সর্বসম্মতিতে পাস হয়েছে। দুই দেশের মধ্যে ছিটমহল ও অপদখলীয় জমি বিনিময় এবং সাড়ে ছয় কিলোমিটার সীমান্ত চিহ্নিত করাই এই স্থল সীমান্ত চুক্তির লক্ষ্য। ছিটমহলগুলোর মধ্যে ভারতের অভ্যন্তরে বাংলাদেশের ৫১টি (৭১১০ একর জমি) এবং বাংলাদেশের ভেতরে ভারতের ১১১টি (১৭১৬০ একর) জমি বিনিময় হবে। অপদখলীয় জমির মধ্যে মেঘালয়, ত্রিপুরা ও পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের অধীন সীমান্তে ২০০০ একর জমি এবং আসামের ২৬৮ একর জমির অধিকারী হবে বাংলাদেশ।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৩১ মে, ২০২১ ইং
ফজর৩:৪৪
যোহর১১:৫৬
আসর৪:৩৬
মাগরিব৬:৪৪
এশা৮:০৭
সূর্যোদয় - ৫:১১সূর্যাস্ত - ০৬:৩৯
পড়ুন