হাত হারালেও লেখাপড়া করতে চায় রাকিবুল
দুই হাত হারিয়ে চিকিত্সার জন্য হুইল চেয়ারে বসে অর্থ সংগ্রহে নেমেছে দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলার মাহমুদপুর ইউনিয়নের ভেবটগাড়ি গুচ্ছগ্রামের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র রাকিবুল হাসান (১০)। সে বলে, আমার ভালো চিকিত্সা করানোর মতো অর্থ মায়ের নেই। তাই ভিক্ষা করে টাকা জোগাড় করছি। আমি হাত দিয়ে লিখতে না পারলেও পড়তে পারি। মুখ দিয়ে কলম ধরে লেখার চেষ্টা চালাচ্ছি। আমি সুস্থ হয়ে পড়াশুনা চালিয়ে যেতে চাই।

রাকিবুলের স্বামী পরিত্যক্তা দিনমজুর মা রাহেলা খাতুন জানান, তিন মাস আগে বৈদ্যুতিক শকে রাকিবুলের দুই হাতের কব্জি ঝলসে যায়। পরে চিকিত্সকরা তার কব্জি দুইটি কেটে ফেলতে বাধ্য হন। এখন চিকিত্সার অভাবে তার শরীরের বিভিন্ন অংশে নানা উপসর্গ দেখা দিচ্ছে। এ কারণে রাকিবুল নিজেই মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরে ভিক্ষা করে নিজের চিকিত্সার অর্থ জোগাড় করছে।

স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মী রুহুল আমিন প্রধান বলেন, রাকিবুলের প্রতিভা দেখে মনে হয় তাকে একটু সহযোগিতা করলে সে লেখাপড়া চালিয়ে যেতে পারবে। কিন্তু তার মায়ের পক্ষে চিকিত্সা কিংবা লেখাপড়া চালানো কোনটাই সম্ভব নয়। তাই দেশের দানশীল ব্যক্তিরা যদি একটু সাহায্যের হাত প্রসারিত করেন তাহলে প্রতিবন্ধী এই শিশুর জীবনের চাকা সামনের দিকে ঘুরে যাবে।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১৫ জুন, ২০২১ ইং
ফজর৩:৪৩
যোহর১১:৫৯
আসর৪:৩৯
মাগরিব৬:৪৯
এশা৮:১৪
সূর্যোদয় - ৫:১১সূর্যাস্ত - ০৬:৪৪
পড়ুন