ছিনতাইয়ের ঘটনায় শিশু আরাফাতের মৃত্যুতে এএসআই প্রত্যাহার ভিডিও ফুটেজ জব্দ
ইত্তেফাক রিপোর্ট২০ ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর দয়াগঞ্জে ছিনতাইকারীর কবলে পড়ে মায়ের কোলে থাকা সাত মাসের শিশু আরাফাতের মৃত্যুর ঘটনায় ওই এলাকায় নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশের এএসআই বদরুল আলমকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত কেউ গত রাতে এ প্রতিবেদন লেখার সময় পর্যন্ত ধরা পড়েনি। পুলিশের দাবি ছিনতাইকারীদের ধরতে একাধিক টিম কাজ করছে।

পুলিশ ওই এলাকার তিনটি সিসি টিভির ফুটেজ সংগ্রহ করেছে পুলিশ। তবে ফুটেজগুলো অস্পষ্ট হওয়ায় দুর্বৃত্তদের চিহ্নিত করতে অসুবিধা হচ্ছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। এছাড়া আকলিমার                 ছিনতাই করা মোবাইল ফোন ট্র্যাকিং করার কাজ চলছে।

গত সোমবার ভোরে দয়াগঞ্জ মোড়ে এক ছিনতাইকারী চলন্ত রিকশায় থাকা যাত্রী আকলিমার ব্যাগ ধরে জোরে টান দিলে কোলে থাকা শিশু আরাফাতসহ তিনি নিচে পড়ে যান। পিচ ঢালা পথে পড়ে শিশুটির মাথায় গুরুতর আঘাত পায়। পরে শিশুটিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিত্সকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় শিশুটির বাবা শাহ আলম বাদী হয়ে যাত্রাবাড়ী থানায় মামলা করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা যাত্রাবাড়ী থানার এসআই মো: রেজোয়ান আহমেদ জানান, তদন্ত চলছে। ওই এলাকার একাধিক সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে। ফুটেজগুলো বিশ্লেষণ করা হচ্ছে।

থানার ওসি আনিসুর রহমান বিশ্বাস বলেন, ঘটনাটি আমরা গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছি। শিগগিরই মামলার একটি ফলাফল জানা যাবে।

শিশু আরাফাতের মৃত্যুর ঘটনায় যাত্রাবাড়ী থানার এএসআই বদরুল আলমকে প্রত্যাহার বিষয়ে ডিএমপির ওয়ারি বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) ফরিদ উদ্দিন আহমেদ সাংবাদিকদের জানান ‘প্রশাসনিক সিদ্ধান্ত অনুযায়ী’ তাকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। তবে ছিনতাই ঘটনার শিকার হয়ে ওই শিশুর মৃত্যুর ঘটনায় তার কোন সম্পৃক্ততা নেই।

এদিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহামুদ জানান, মাথায় আঘাতের কারণে শিশু আরাফাতের নাক, মুখ দিয়ে রক্তক্ষরণের কারণে তার মৃত্যু হয়েছে।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২০ নভেম্বর, ২০২১ ইং
ফজর৫:১৪
যোহর১১:৫৬
আসর৩:৪০
মাগরিব৫:১৯
এশা৬:৩৭
সূর্যোদয় - ৬:৩৫সূর্যাস্ত - ০৫:১৪
পড়ুন