আওয়ামী লীগ মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাত্কার ১৪ নভেম্বর
গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত মোট ৪০৩৫ ফরম বিক্রি
বিশেষ প্রতিনিধি১২ নভেম্বর, ২০১৮ ইং
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়নপত্র কেনা ও জমা দেওয়া যাবে আজ সোমবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত। গতকাল রবিবার বিকালে বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে দলের সংসদীয় বোর্ডের সভা শেষে দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এ তথ্য জানিয়ে বলেন, মনোনয়ন প্রত্যাশী সবার সাক্ষাত্কার গ্রহণ করা হবে আগামী ১৪ নভেম্বর বেলা ১১টা থেকে। ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের সংসদীয় বোর্ডের সভায় এ সাক্ষাত্কার নেওয়া হবে। একদিনেই এই মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাত্কার শেষ করা হবে।

এদিকে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের কাছ থেকে প্রার্থিতা প্রত্যাহার পত্রও জমা নেওয়া হচ্ছে। এছাড়া কঠোর অঙ্গীকারনামা জমা নিচ্ছে আওয়ামী লীগ। এতে উল্লেখ থাকছে ‘প্রার্থী মনোনয়নে আওয়ামী লীগ সংসদীয় বোর্ডের যে কোন সিদ্ধান্ত আমি হূষ্টচিত্তে ও বিনা প্রতিবাদে মেনে নেব। মনোনয়ন না পেলে আমি দলীয় সিদ্ধান্ত মাথা পেতে নিয়ে এই আসনে এবং অন্যত্র আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে আন্তরিকভাবে কাজ করে যাব এবং কোন অবস্থাতেই এই নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করব না বা দলীয় প্রার্থীর প্রতিকূলে কোনরূপ কাজ করব না। এই অঙ্গীকারের কোনরূপ ব্যত্যয় ঘটলে আমি তাত্ক্ষণিকভাবে দল থেকে বহিষ্কৃত বিবেচিত হব।’ গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত মোট ৪ হাজার ৩৫ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী আওয়ামী লীগের মনোনয়নের জন্য আবেদনপত্র সংগ্রহ করেছেন। গতকালই ফরম ক্রয় করেছেন ৮৩৫ জন। এরমধ্যে ঢাকা বিভাগে ২২০ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ১৮২ জন, বরিশাল বিভাগে ৮৮ জন, রাজশাহী বিভাগে ৭৯ জন, রংপুর বিভাগে ৮৩ জন, সিলেট বিভাগে ২৬ জন, ময়মনসিংহ বিভাগে ৭২ জন ও খুলনা বিভাগে ৮৫ জন মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন।

সৈয়দ আশরাফের আসনে তার তিন ভাই মনোনয়ন নিলেন

কিশোরগঞ্জে জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের আসনে তার পাশাপাশি তিন ভাইও আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কিনেছেন। আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ আশরাফ ফুসফুসে ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে এখন থাইল্যান্ডে চিকিত্সাধীন রয়েছেন। তার রাজনীতিতে ফেরার সম্ভাবনা খুব কম বলে সম্প্রতি তার ভাই শাফায়াতুল ইসলাম জানান। তবে ইতোমধ্যে কিশোরগঞ্জ-১ (সদর) আসনে সৈয়দ আশরাফের জন্য আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কেনা হয়েছে। মনোনয়ন ফরম নিয়েছেন তার ভাই মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ শাফায়াতুল ইসলামও। সবশেষ গতকাল রবিবার এ আসন থেকে সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের অপর দুই ভাই সৈয়দ আশফাক উল ইসলাম ও সৈয়দ মঞ্জুরুল ইসলামও আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন।

মনোনয়নপত্র জমা দিলেন হাজী সেলিম ও তার পুত্র

ঢাকা-৭ আসনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিতে গতকাল মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন এ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য হাজী মো. সেলিম। একইসঙ্গে হাজী সেলিমের পুত্র ও মদিনা গ্রুপের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ সোলায়মান সেলিমও মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। রাজধানীর ধানমন্ডির আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন তারা।

আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম নিলেন ফরাসউদ্দিন

নৌকা প্রতীকে প্রার্থী হওয়ার আশায় আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কিনেছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর  মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন। ক্ষমতাসীন দলের ফরম বিক্রির তৃতীয় দিনে গতকাল আওয়ামী লীগের সভানেত্রীর ধানমন্ডি কার্যালয় থেকে ফরম নেন বিশিষ্ট এই অর্থনীতিবিদ। ফরাসউদ্দিন হবিগঞ্জ-৪ আসন থেকে ভোটে লড়তে চান। এ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য মাহবুব আলী।

সাবেক আইজিপি মনোনয়ন ফরম নিলেন

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হতে মনোনয়নপত্র কিনেছেন সাবেক আইজিপি নূর মোহাম্মদ। কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া-কটিয়াদি আসনের জন্য তিনি মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন।

এছাড়াও সিলেট-১ আসনে সাবেক মেয়র বদরুদ্দীন কামরান আওয়ামী লীগের মনোনয়নের জন্য আবেদনপত্র সংগ্রহ করেছেন। গতকাল ঢাকা বিভাগের টাঙ্গাইল-১ আসন থেকে আব্দুর রাজ্জাক, ঢাকা-৬ আসনে আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, ঢাকা-৮ আসনে আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, গাজীপুরের কালীগঞ্জ থেকে চিত্রনায়ক ফারুক, ঢাকা-৮ আসনে সাবেক ছাত্রনেতা সুত্রাপুর থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গাজী আবু সাইদ, কিশোরগঞ্জ-৫ আসনে শহীদুল্লাহ মুহাম্মদ শাহ নূর মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন।

চট্টগ্রাম বিভাগের চট্টগ্রাম-১ আসনে আওয়ামী লীগের ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, ফেনী-৩ আসনে অভিনেত্রী শমী কায়সার, চাঁদপুর থেকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি শফিকুর রহমান, লক্ষ্মীপুর সদর থেকে বিমানমন্ত্রী শাহজাহান কামাল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ আসনে বদরুদ্দোজা মো. ফরহাদ হোসেন সংগ্রাম মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। ময়মনসিংহ বিভাগে জামালপুর-৫ আসনে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মারুফা আক্তার পপি, নেত্রকোনা-২ আসনে সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রনেতা শাহ মোস্তফা আলমগীর, নেত্রকোনা-৩ আসনে সাবেক এমপি মঞ্জুর কাদের কোরাইশী, ময়মনসিংহ-৭ আসনে নুরুল আলম পাঠান মিলনসহ ৭২ জন মনোনয়ন ফরম নিয়েছেন। রাজশাহী বিভাগে জয়পুরহাট-২ আসনে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাইদ আল মাহমুদ স্বপন, একই আসন থেকে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম সোলায়মান আলী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।

খুলনা বিভাগে মাগুরা-১ আসনে প্রধানমন্ত্রীর এপিএস সাইফুজ্জামান শিখর, বাগেরহাট-২ আসনে শেখ হেলালের ছেলে শেখ তন্ময়, বাগেরহাট-৪ আসনে ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি বদিউজ্জামান সাহাগ, যশোর-২ আসনে প্রফেসর রফিকুল ইসলাম, মাদারীপুর-৩ আসনে আনোয়ার হোসেন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। রংপুর বিভাগে দিনাজপুর-৩ আসনে হুইপ ইকবালুর রহিম, দিনাজপুর-৫ আসনে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া জাকির, ঠাকুরগাঁও-৩ আসনে পীরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আখতারুল ইসলাম মনোনয়ন ফরম নিয়েছেন। বরিশাল বিভাগে বরিশাল-৫ আসনে স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ নাথ, বরিশাল-২ আসনে ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শাহে আলম, বরিশাল সদর আসনে জেবুন্নেসা আফরোজ হীরন মনোনয়ন ফরম নিয়েছেন।


 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১২ নভেম্বর, ২০১৯ ইং
ফজর৪:৫৩
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৩৯
মাগরিব৫:১৭
এশা৬:৩২
সূর্যোদয় - ৬:১১সূর্যাস্ত - ০৫:১২
পড়ুন