শিশুদের হেডফোন ব্যবহারে শ্রবণ শক্তি নষ্ট হয়
০৬ অক্টোবর, ২০১৮ ইং
আজকাল ২/৩ বছরের শিশুরা কানে হেড ফোন ব্যবহার করে। অনেক ক্ষেত্রে শিশুর স্মার্টনেস বোঝানোর জন্য বাবা-মাও শিশুকে ডেহফোন কিনে দেন। আর সব চেয়ে উদ্ব্বেগজনক বিষয় হচ্ছে বিভিন্ন হেডফোন উত্পাদক কোম্পানীসমূহ এ ধরণের হেডফোন শতভাগ নিরাপদ বলে বাজারজাত করে। কিন্তু নিউ ইয়র্ক টাইমস পত্রিকায় প্রকাশিত এক রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে শিশুদের অতিরিক্ত হেডফোন ব্যবহারে হিয়ারিং লস বা শ্রবণশক্তি হ্রাস পেতে পারে। গবেষকগণ বলছেন, তারা বিভিন্ন ধরণের হেডফোন পরীক্ষা করে দেখেছেন এসব হেডফোন থেকে যে পরিমাণ শব্দ তরঙ্গায়িত হবার কথা তার চেয়ে অধিক শব্দ শিশুদের কানের পর্দায় আঘাত করে। ফলে বেশীরভাগ ক্ষেত্রে ধীরে ধীরে শ্রবণশক্তি হ্রাস পেতে থাকে। এব্যাপারে বিশেষজ্ঞগণ মনে করেন এমনও হেডফোন আছে যার শব্দ মাত্রা এতটাই ভয়াবহ যে, মূহুর্তের মধ্যেই এসব হেডফোন শিশুর শ্রবণশক্তি হ্রাস করতে পারে। হেডফোনের ক্ষতিকর প্রভাব নিয়ে প্রকাশিত গবেষণা রিপোর্টটি পিতা-মাতা অভিভাবকদের জন্য ওয়েক আপ কল হিসাবে বিবেচিত হতে পারে, যাতে তারা সন্তানদের হেডফোন ব্যবহার জনিত সমস্যা থেকে রক্ষা করতে পারেন। রিপোর্টে উল্লেখ করা হয় ৮-১২ বছর বয়স পর্যন্ত শিশুদের প্রায় অর্ধেকেই কানে হেডফোন ব্যবহার করে মিউজিক শুনে থাকেন। তাই শিশুদের এসব ক্ষতিকর হেডফোন ব্যবহার থেকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন গবেষকগণ।

nডা: মোড়ল নজরুল ইসলাম

চুলপড়া, চর্মরোগ ও এলার্জি এবং

যৌন সমস্যা বিশেষজ্ঞ

লেজার এন্ড কসমেটিক সার্জন

বাংলাদেশ স্কিন সেন্টার

বাড়ী-১৭ রোড-৬, ধানমন্ডি, ঢাকা

 

 

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৬ অক্টোবর, ২০২১ ইং
ফজর৪:৩৬
যোহর১১:৪৭
আসর৪:০৩
মাগরিব৫:৪৫
এশা৬:৫৬
সূর্যোদয় - ৫:৫১সূর্যাস্ত - ০৫:৪০
পড়ুন