২৪ বিলিয়ান ডলার ছাড়ালো বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ
ইত্তেফাক রিপোর্ট৩০ এপ্রিল, ২০১৫ ইং
২৪ বিলিয়ান ডলার ছাড়ালো বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ
বাংলাদেশ ব্যাংকে রক্ষিত বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ প্রথমবারের মতো ২৪ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়েছে। এর আগে গত ফেব্রুয়ারিতে রিজার্ভ ২৩ বিলিয়ন ডলারের মাইলফলক অতিক্রম করে। রফতানি ও রেমিট্যান্সের প্রবৃদ্ধি ছাড়াও বেসরকারি খাতে প্রচুর বিদেশি ঋণ আসায় বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বেড়েছে বলে সংশ্লিষ্টরা বলছেন।

বাংলাদেশ ব্যাংকের ফরেক্স রিজার্ভ অ্যান্ড ট্রেজারি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের মহাব্যবস্থাপক কাজী ছাইদুর রহমান বলেন, দেশে রিজার্ভের পরিমাণ এটাই সর্বোচ্চ। এর আগে ২৬ ফেব্রুয়ারিতে রিজার্ভ ২৩ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়েছিল। অভ্যন্তরীণ খাদ্য উত্পাদন বাড়ার ফলে আমদানি চাহিদা তুলনামূলক কম থাকা এবং রফতানি ও রেমিট্যান্সে ভালো প্রবৃদ্ধিই এ বড় রিজার্ভের কারণ বলে তিনি মনে করেন।

বাংলাদেশ ব্যাংক বলছে, বাংলাদেশের এ রিজার্ভ দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। প্রথম অবস্থানে ভারতের বর্তমান ৩১৫ বিলিয়ন ডলারের রিজার্ভ রয়েছে। আর তৃতীয় অবস্থানে পাকিস্তানের বর্তমান রিজার্ভের পরিমাণ প্রায় ১৫ বিলিয়ন ডলার। প্রাপ্ত তথ্য মতে, চলতি অর্থবছরের প্রথম নয় মাসে (জুলাই-মার্চ) রফতানি আয় হয়েছে দুই হাজার ২৯০ কোটি ডলার। আগের অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় যা প্রায় ৩ শতাংশ বেশি। আর এসময়ে প্রবাসীদের রেমিট্যান্স এসেছে এক হাজার ১২৫ কোটি ডলার আগের অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় যা ৭ দশমিক ২১ শতাংশ বেশি। ২০১৩-১৪ অর্থবছর শেষে রেমিট্যান্স এক দশমিক ৬১ শতাংশ কমার পর এবারের এ প্রবৃদ্ধি রিজার্ভে ইতিবাচক প্রভাব ফেলেছে। যদিও গত ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত আট মাসে ২ হাজার ৬৪৩ কোটি ডলারের আমদানি আগের অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় ১৪ দশমিক ২০ শতাংশ বেশি। বেসরকারি খাতে প্রচুর বিদেশি ঋণ আসার ফলে সামগ্রিকভাবে রিজার্ভ বাড়ছে বলে সংশ্লিষ্টরা বলছেন।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৩০ এপ্রিল, ২০১৯ ইং
ফজর৪:০৪
যোহর১১:৫৬
আসর৪:৩২
মাগরিব৬:২৯
এশা৭:৪৭
সূর্যোদয় - ৫:২৫সূর্যাস্ত - ০৬:২৪
পড়ুন