বেসরকারি ৩ মেডিক্যাল কলেজ সাময়িক বন্ধের নির্দেশ
বিশেষ প্রতিনিধি১৩ জুন, ২০১৬ ইং
মেডিক্যাল কলেজ পরিচালনার নীতিমালা ভঙ্গ করায় দেশের তিনটি বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজের কার্যক্রম সাময়িকভাবে বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। গতকাল রবিবার সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজ নীতিমালা সংক্রান্ত সভায় সভাপতিত্বকালে মন্ত্রী এ নির্দেশ দেন। কলেজগুলো হচ্ছে রংপুরের নর্দান মেডিক্যাল কলেজ, গাজীপুরের সিটি মেডিক্যাল কলেজ, আশুলিয়ার নাইটিঙ্গেল মেডিক্যাল কলেজ।

বৈঠকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, ওই মেডিক্যালের শিক্ষার্থীদের সংশ্লিষ্ট অঞ্চলের বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন অন্যান্য বেসরকারি কলেজে শিক্ষা কার্যক্রম শেষ করার সুযোগ দেওয়া হবে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। সভায় নীতিমালা না মানায় চট্টগ্রামের সাউদার্ন মেডিক্যাল কলেজের আসন্ন ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি কার্যক্রম স্থগিত এবং একই জেলার বিজিসি ট্রাস্ট মেডিক্যাল কলেজের আসন সংখ্যা ১২৫ থেকে কমিয়ে ৭৫ করা হয়েছে।

আগামী তিন মাসের মধ্যে দেশের ৬৮টি বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজ পরিদর্শন কার্যক্রম শেষ করে প্রতিবেদন জমা দিতে পরিদর্শন কমিটিকে নির্দেশ দিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, মেডিক্যাল কলেজের মান বজায় না থাকলে দেশে সুচিকিত্সক পাওয়া যাবে না। শুধু সার্টিফিকেট বিতরণের জন্য কলেজের কার্যক্রম চালিয়ে যেতে দেওয়া যায় না। মানুষ মারার ডাক্তার আমরা চাই না।                 কলেজের কার্যক্রমের মান সুরক্ষায় সরকার কঠোরভাবে তদারক করবে। পরিদর্শন কমিটির প্রতিবেদনের সুপারিশ দ্রুত বাস্তবায়ন করা হবে বলে জানান মন্ত্রী। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিদর্শন কমিটি ইতোমধ্যে ২৫টি বেসরকারি কলেজের পরিদর্শন শেষ করেছে বলে সভায় জানানো হয়।

ভবিষ্যতে বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজ অনুমোদন, নবায়ন ও আসন সংখ্যা বৃদ্ধির সময় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয় এবং বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের আলাদা পরিদর্শন প্রতিবেদন সমন্বিতভাবে আলোচনার মাধ্যমে পর্যালোচনা করে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে সভায় সিদ্ধান্ত হয়।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব বিমান কুমার সাহা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. দীন মো. নূরুল হক, বিএমডিসির প্রেসিডেন্ট মো. শহীদুল্লাসহ ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিত্সা শিক্ষা অনুষদের ডিন, মন্ত্রণালয় ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১৩ জুন, ২০২১ ইং
ফজর৩:৪৩
যোহর১১:৫৯
আসর৪:৩৯
মাগরিব৬:৪৯
এশা৮:১৪
সূর্যোদয় - ৫:১১সূর্যাস্ত - ০৬:৪৪
পড়ুন