হারের জন্য এফবিআই প্রধানকে দুষলেন হিলারি
ট্রাম্পবিরোধী বিক্ষোভ অব্যাহত যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণে সতর্কতা জারি তুরস্কের
ইত্তেফাক ডেস্ক১৪ নভেম্বর, ২০১৬ ইং
যুক্তরাষ্ট্রে পরাজিত ডেমোক্র্যাট দলের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন নিজের হারের জন্য এফবিআই প্রধান জেমস কোমিকে দায়ী করছেন। তিনি বলেছেন, নির্বাচনের মাত্র এক সপ্তাহ আগে তার ই-মেইল নিয়ে পুনরায় তদন্তের হঠাত্ ঘোষণা নির্বাচনী প্রচারণার শক্তি নষ্ট করে দিয়েছিল। পার্টির দাতাদের সঙ্গে হিলারির ফাঁস হওয়া এক টেলিফোন আলাপ থেকে এই তথ্য জানা গেছে। এদিকে গতকাল রবিবারও দেশের বিভিন্ন স্থানে ট্রাম্পবিরোধী বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে। অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমনে সতর্কতা জারি করেছে তুরস্ক।

বিবিসি জানিয়েছে, মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী থাকাকালীন হিলারি রাষ্ট্রীয় তথ্য আদান-প্রদানে ব্যক্তিগত ই-মেইল সার্ভার ব্যবহার করেছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। ২০১৫ সালে প্রথম তার বিরুদ্ধে অভিযোগটি উঠলেও তদন্তের পর গুরুতর কিছু পাওয়া যায়নি বলে এফবিআই জানিয়েছিল। এ কারণে তার বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ না আনার সিদ্ধান্ত নেয় সংস্থাটি। তবে নির্বাচনের মাত্র দশদিন আগে কোমি কংগ্রেসকে জানান, তিনি নতুন কিছু ই-মেইল এর সন্ধান পেয়েছেন এবং সেগুলো নিয়ে পুনরায় তদন্ত করবেন। তবে নির্বাচনের মাত্র দু’দিন আগে আবারো এক চিঠিতে জানিয়েছিলেন যে গুরুতর কিছু পাওয়া যায়নি বলে তিনি তার পূর্ববর্তী অবস্থানেই ফিরে যাচ্ছেন। রিপাবলিকান পার্টির সমর্থকরা অবশ্য অনেকেই বলছিলেন হিলারিকে রাষ্ট্রীয়ভাবে সহায়তা দেয়া হচ্ছে যাতে তার বিরুদ্ধে কোন তদন্ত না হয়। প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার প্রশাসনে ২০০৯ থেকে ১৩ সাল পর্যন্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্বে ছিলেন হিলারি। মঙ্গলবার নির্বাচনে হারের পর থেকে তাকে প্রকাশ্যে খুব একটা দেখা যাচ্ছে না। হিলারি বলেছেন, জেমস কোমির এসব অভিযোগের পর প্রচারণার গতি বরং আরো বাড়িয়ে দেয়া উচিত ছিলো।

বিবিসি জানায়, ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার প্রতিবাদে চতুর্থ দিনের মতো নিউইয়র্ক, শিকাগো, লস অ্যাঞ্জেলসসহ দেশটির অনেক শহরে বিক্ষোভ হয়েছে। নিউ ইয়র্কে নব নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প যে বহুতল ভবনে বাস করেন তার সামনে গিয়ে কয়েক হাজার বিক্ষোভকারী স্লোগান দিতে থাকেন, ‘তিনি আমাদের প্রেসিডেন্ট নন’, ‘ঘৃণা দিয়েই ট্রাম্পকে ভালবাসি’।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, অরেগন অঙ্গরাজ্যের পোর্টল্যান্ডের বিক্ষোভ থেকে পুলিশ ২০ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। পুলিশ জানিয়েছে, তারা পুলিশকে লক্ষ্য করে পাথর, বোতল ছুঁড়ে মারছিল। রাস্তায় আগুন জ্তালিয়ে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করা হচ্ছে। নিউ ইয়র্ক, লস্যঅ্যাঞ্জেলসে বড় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে্ নিউ ইয়র্কের বিক্ষোভকারী মেরি ফ্লোরিন ম্যাকব্রাইড (৬২) বলেন, আমরা আতঙ্কিত যে ট্রাম্পের মতো একজন নারী বিদ্বেষী আর বর্ণবাদী মানুষ প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন। গতকাল দেশের বিভিন্ন স্থানে চলা বিক্ষোভ শান্তিপূর্ণ ছিল।

মার্কিন সংবাদ মাধ্যম সিএনএন জানায়, তুরস্ক সরকার গতকাল যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণে তার দেশের নাগরিকদের সতর্ক থাকার আহবান জানিয়েছে। গত মাসে মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্ট তুরস্ক ভ্রমনে নাগরিকদের সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছিল। এদিকে ন্যাটো মহাসচিব বলেছেন, আমেরিকা-ইউরোপের একা চলা নীতি ঠিক হবে না।

ইতালির সাবেক প্রধানমন্ত্রী সিলভিও বার্লোসকুনি বলেছেন, ট্রাম্পের সঙ্গে আমার অনেক মিল রয়েছে। আমি যেমন ব্যবসা থেকে প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলাম, তেমনি ট্রাম্পও ব্যবসা থেকে হোয়াইট হাউসে গেছেন। এছাড়া  আরো অনেক মিল রয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি। বর্তমানে অবৈধ যৌনাচার আর ক্ষমতার অপব্যবহারের দায়ে বিচারের মুখোমুখি বার্লোসকুনি। অন্যদিকে জলবায়ু চুক্তি থেকে দ্রুত বেরিয়ে আসার উপায় খুঁজছেন ট্রাম্প। তবে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী কেরি বললেন, ট্রাম্পের কার্যক্রম শুরুর আগে জলুবায়ু চুক্তিতে অগ্রগতি আনতে চায়। বেক্সিট নেতা ফারাজ সাক্ষাত্ করেছেন ট্রাম্পের সঙ্গে। জাপান-যুক্তরাষ্ট্র সম্পর্কের গুরুত্ব নিয়ে ট্রাম্পের সঙ্গে বৃহস্পতিবার বৈঠক করবেন প্রধানমন্ত্রী শিনজো অ্যাবে।

 

 

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১৪ নভেম্বর, ২০২০ ইং
ফজর৪:৫৩
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৩৮
মাগরিব৫:১৭
এশা৬:৩২
সূর্যোদয় - ৬:১১সূর্যাস্ত - ০৫:১২
পড়ুন