জগন্নাথ পাঁড়ে ও সোহেল আহমেদ
ঝালকাঠিতে দুই বিচারক হত্যা দিবস আজ
ঝালকাঠি প্রতিনিধি১৪ নভেম্বর, ২০১৬ ইং
আজ ১৪ নভেম্বর ঝালকাঠিতে দুই বিচারক হত্যা দিবস। জেএমবি জঙ্গিদের আত্মঘাতী বোমা হামলায় ২০০৫ সালের এই দিনে ঝালকাঠির দুই বিচারক নিহত হন। সকাল ৯ টার দিকে সরকারি বাসা থেকে কর্মস্থলে যাবার পথে তাদের বহনকারী মাইক্রোবাসে  নৃশংস হামলা চালানো হয়। ঘটনাস্থলেই নিহত হন সিনিয়র সহকারী জজ সোহেল আহম্মেদ এবং বরিশাল শেরে বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে মৃতু হয় বিচারক সিনিয়র সহকারী জজ জগন্নাথ পাঁড়ের। মাইক্রোবাসটি বিধ্বস্ত হয়। আহত অবস্থায় ধরা পড়ে হামলাকারী জেএমবি সুইসাইড স্কোয়ার্ডের সদস্য ইফতেখার হাসান আল মামুন।

সারাদেশের মানুষ এ ঘটনায় হতবাক হয়ে যান। এরপর জেএমবির শীর্ষ নেতারা আটক হয়। জঙ্গিদের ঝালকাঠিতে এনে তাদের উপস্থিতিতে জেলা জজ আদালতে চাঞ্চল্যকর এ মামলার বিচারকার্য চলে। অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ রেজা তারিক আহমেদ ২০০৬ সালের ২৯ মে সাতজনকে ফাঁসির আদেশ দেন। উচ্চ আদালতে সে রায় বহালের পর দেশের বিভিন্ন জেলখানায় ২০০৭ সালের ২৯ মার্চ ৬ শীর্ষ জঙ্গির মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়। এরা হলেন- জেএমবি প্রধান শায়খ আবদুর রহমান, সেকেন্ড ইন কমান্ড সিদ্দিকুর ইসলাম বাংলাভাই, সামরিক শাখা প্রধান আতাউর রহমান সানি, উত্তরাঞ্চলীয় সমন্বয়কারী আবদুল আউয়াল, দক্ষিণাঞ্চলীয় সমন্বয়কারী খালেদ সাইফুল­াহ ও বোমা হামলাকারী ইফতেখার হাসান আল মামুন।

দুই বিচারকের হত্যার পরে সরকার জেলা ও দায়রা জজ ও অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজকে সার্বক্ষণিক নিরাপত্তা দেয়ার ব্যবস্থা করলেও  পর্যাপ্ত নিরাপত্তা পাচ্ছেন না সহকারী জজ ও জুডিশিয়াল ম্যাজিস্র্বেটরা।  বিচারক হত্যা দিবস উপলক্ষে আজ সোমবার বিকেলে ঝালকাঠি জেলা ও দায়রা জজ আদালতে স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হবে।

 

 

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১৪ নভেম্বর, ২০২০ ইং
ফজর৪:৫৩
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৩৮
মাগরিব৫:১৭
এশা৬:৩২
সূর্যোদয় - ৬:১১সূর্যাস্ত - ০৫:১২
পড়ুন