রাবি শিক্ষক জলির আত্মহত্যা
প্ররোচনার দায়ে সহকর্মীর বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট
স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং
প্ররোচনার দায়ে সহকর্মীর বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আকতার জাহান জলিকে আত্মহত্যায় প্ররোচনার দায়ে তারই জুনিয়র সহকর্মী আতিকুর রহমান রাজাকে অভিযুক্ত করে আদালতে প্রতিবেদন দিয়েছে পুলিশ। গত আগস্টে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নগরীর মতিহার থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ব্রজ গোপাল আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেন বলে জানান। তবে আকতার জাহান জলির আত্মহত্যার ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের গঠিত তদন্ত কমিটি এখনো প্রতিবেদন দাখিল করেনি বলে জানা গেছে। এ কারণে নিহত অধ্যাপকের সাবেক স্বামী একই বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক তানভীর আহমদ এখনো ছুটিতে রয়েছেন।

গত বছরের ৯ সেপ্টেম্বর বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের জুবেরী ভবনে নিজের আবাসিক কক্ষের দরজা ভেঙে সহযোগী অধ্যাপক আকতার জাহান জলির মরদেহ এবং সুইসাইডাল নোট উদ্ধার করে পুলিশ। নোটে লেখা ছিল, ‘আমার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়। শারীরিক, মানসিক চাপের কারণে আত্মহত্যা করলাম। সোয়াদকে (আকতার জাহানের ছেলে) যেন ওর বাবা কোনোভাবেই নিজের হেফাজতে নিতে না পারে। যে বাবা সন্তানের গলায় ছুরি ধরতে পারে, সে যেকোনো সময় সন্তানকে মেরেও ফেলতে পারে।’ এ ঘটনার পরদিন আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে জলির ছোট ভাই কামরুল হাসান বাদী হয়ে মতিহার থানায় অজ্ঞাত আসামির বিরুদ্ধে একটি মামলা করেন।

গত বছরের ৪ নভেম্বর আত্মহত্যায় প্ররোচনার মামলায় আকতার জাহানের জুনিয়র সহকর্মী গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আতিকুর রহমান রাজাকে আটক করে পুলিশ। ৫ নভেম্বর আত্মহত্যা প্ররোচনার মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়।

এদিকে, শিক্ষক আকতার জাহানের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে তার সাবেক স্বামী এবং গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক তানভীর আহমদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ ওঠায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় তানভীর আহমদকে বিশেষ ছুটি দেওয়া হয়। ওই সভায় অভিযোগ তদন্ত করার জন্য পরিবেশ বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক মো. সুলতান-উল-ইসলামকে প্রধান করে তিন সদস্যবিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়েছিল।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১১ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং
ফজর৪:২৭
যোহর১১:৫৬
আসর৪:২৩
মাগরিব৬:১০
এশা৭:২৩
সূর্যোদয় - ৫:৪৪সূর্যাস্ত - ০৬:০৫
পড়ুন