ইউটিউব সদরদপ্তরে হামলার পর আত্মঘাতী নারী হামলাকারী
০৫ এপ্রিল, ২০১৮ ইং
ক্ষোভের কারণেই হামলা

ইত্তেফাক ডেস্ক

ভিডিও শেয়ারিং ওয়েবসাইট ইউটিউবের সদর দপ্তরে একজন নারী বন্দুকধারী হামলা চালিয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। পরে ওই নারী বন্দুকধারীকে নিহত অবস্থায় পাওয়া যায়। সে নিজের গুলিতেই মারা গেছে বলে পুলিশ বলছে। যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় অবস্থিত সদরদপ্তরে গুলিতে অন্তত দুই নারী ও এক পুরুষসহ তিনজন আহত হয়েছে যাদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ইউটিউবের প্রতি ক্ষোভের কারণেই এই হামলা বলে ধারণা করছে পুলিশ। খবর বিবিসি’র

সান ব্রুনো কার্যালয়ে হঠাত্ করে গোলাগুলির শব্দ শোনার পর কর্মীরা দ্বিগ্বিদিক পালাতে শুরু করে। এরপর পুলিশ সদর দপ্তরের চারদিকে অবস্থান নেয়। বেশ কয়েকজনকে স্থানীয় হাসপাতালে নেওয়া হয়, যদিও তাদের অবস্থা সম্পর্কে জানা যায়নি। ইউটিউবের মালিক প্রতিষ্ঠান গুগল জানিয়েছে, ইউটিউব কার্যালয়ে গোলাগুলিতে তারা একটি তদন্ত শুরু করেছে। ভবন থেকে দ্রুত পালাতে গিয়েও অনেকে আহত হয়েছে। স্থানীয় টেলিভিশনের ছবিতে দেখা গেছে, অনেকে বিভিন্ন ভবন থেকে মাথার ওপর হাত উঁচু করে বেরিয়ে আসছে। ইউটিউবের এই কার্যালয়ে প্রায় ১৭শ’ কর্মী কাজ করে।

কে এই হামলাকারী

হামলাকারী নারীর পরিচয় প্রকাশ করেছে পুলিশ। তার নাম নাসিম আগদাম। ইরানি বংশোদ্ভূত এই নারীর বয়স ৩৯। এ আক্রমণের উদ্দেশ্য কি তা এখনো তদন্ত করা হচ্ছে। তবে সংবাদ মাধ্যমের রিপোর্টে বলা হয়, ইউটিউবে নাসিম আগদাম যেসব ভিডিও পোস্ট করতো তা ফিল্টার করা হচ্ছিল বলে সে ইউটিউব কর্তৃপক্ষের ওপর ক্ষিপ্ত ছিল। নাসিম আগদাম দক্ষিণ ক্যালিফোর্নিয়ার সান ডিয়েগোর বাসিন্দা। তার একটি ইউটিউব চ্যানেল এবং একটি ওয়েবসাইট ছিল। সে যেসব ভিডিও পোস্ট করতো তার মধ্যে প্রাণীর প্রতি নিষ্ঠুরতাকে তুলে ধরা হতো। নাসিম আগদামকে বিভিন্ন জায়গায় একজন ‘ভেগান বডিবিল্ডার, শিল্পী এবং র?্যাপ গায়ক’ বলে বর্ণনা করা হয়েছে। গত বছরের জানুয়ারিতে সে অভিযোগ করে যে ইউটিউব তার ভিডিওগুলো ফিল্টার করছে। এ কারণে অপেক্ষাকৃত কম লোক তা দেখতে পারছে এবং এ থেকে সে যে অর্থ আয় করতো তাও কমে যাচ্ছিল। তার বাবাও বিষয়টি স্বীকার করেছেন।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৫ এপ্রিল, ২০২১ ইং
ফজর৪:৩০
যোহর১২:০২
আসর৪:৩০
মাগরিব৬:১৯
এশা৭:৩২
সূর্যোদয় - ৫:৪৭সূর্যাস্ত - ০৬:১৪
পড়ুন