রাজশাহী বহুমুখী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়টি সরকারি করা হোক
২৭ আগষ্ট, ২০১৫ ইং
১৯২৫ সালে রাজশাহী শহরের কেন্দ্রস্থল হেতেম খাঁ মহল্লার মোহামেডান এসোসিয়েশন ভবনে ‘রাজশাহী জুনিয়র গার্লস মাদ্রাসা’ প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৫৭ সালের ১৫ জানুয়ারি এটি ‘রাজশাহী বহুমুখী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়’ নামে পরিচিতি লাভ করে। রাজশাহী গার্লস মাদ্রাসায় শুধু মুসলমান মেয়েদের ভর্তির সুযোগ থাকলেও ১৯৫৭ সাল থেকে সকল ধর্ম ও সম্প্রদায়ের মেয়েদের শিক্ষার জন্য এটি উন্মুক্ত করে দেয়া হয়। বর্তমানে স্কুলটি এক একর জমির ওপর চারটি বৃহত্ দ্বিতল বিল্ডিং নিয়ে কার্যক্রম পরিচালনা করছে। এই বিদ্যালয়ের ছাত্রী সংখ্যা ১৪৫০ জন। বিদ্যালয়টির চারদিকে প্রায় ১০০০ বর্গফুটের সুরক্ষিত সীমানা প্রাচীর রয়েছে। এখানে ‘জাহানারা কামারুজ্জামান অডিটোরিয়াম’ নামে একটি বিশাল মিলনায়তন রয়েছে। বিদ্যালয়ের ভিতরে রয়েছে একটি খেলার মাঠ। বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা স্থানীয় ও জাতীয় পর্যায়ে খেলাধুলায় কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখে চলেছে। বিভিন্ন পরীক্ষায় এই স্কুলের ফলাফলও ঈর্ষণীয়। শ্রেণিকক্ষগুলোতে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে। বিদ্যালয়ে একটি সুসজ্জিত কম্পিউটার ল্যাব রয়েছে। অধিকাংশ ক্লাসরুমই ডিজিটাইজড। জানা গেছে, বর্তমান সরকার রাজশাহী শহরে কয়েকটি বেসরকারি উচ্চ বিদ্যালয়কে সরকারি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কিন্তু অত্যন্ত দুঃখের বিষয়, রাজশাহী অঞ্চলে মুসলিম নারী ক্ষাির অগ্রদূত প্রায় শতবর্ষী রাজশাহী বহুমুখী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়টি সরকারিকরণের এই তালিকায় স্থান পায়নি। পরিশেষে বিদ্যালয়টি সরকারি করার জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে বিনীত আবেদন জানাচ্ছি।

ড. মো. মোস্তফা কামাল,

১৭ বেগম রোকেয়া রোড,

হেতেম খাঁ, রাজশাহী ৬০০০

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২৭ আগষ্ট, ২০১৯ ইং
ফজর৪:২০
যোহর১২:০১
আসর৪:৩৩
মাগরিব৬:২৫
এশা৭:৪০
সূর্যোদয় - ৫:৩৮সূর্যাস্ত - ০৬:২০
পড়ুন