রাজস্ব খাতভুক্ত করুন
০৩ মার্চ, ২০১৬ ইং
বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ডের অধীন উপজেলা কেন্দ্রীয় সমবায় সমিতি (ইউসিসিএ)-রভাগ্যহত কর্মচারীদের ভাগ্যে কখনো টাইম স্কেল, সিলেকশন গ্রেড তো দূরের কথা, বিগত বিভিন্ন সময়ে ঘোষিত স্কেলের বেতনভাতাও বাস্তবায়ন হয়নি। অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা তো আরো দূরের ব্যাপার। এমনিতেই বেতনভাতা অনিশ্চিত, মাসের পর মাস বছরের পর বছর বিনা বেতনে অর্ধ বেতনে দিন কাটছে। তার ওপর বর্তমানে নতুন জাতীয় বেতন স্কেল বাস্তবায়ন না-হওয়া তাঁদের ব্যক্তি ও পারিবারিক জীবনে কতটা দুঃসহ প্রভাব ফেলবে তা ভুক্তভোগী মাত্রই অনুভব করতে পারেন। মাস শেষে বেতন নিয়ে গোল বাধে। কর্মচারীদের দাবি—বেতন চাই। বিআরডিবি কর্তৃপক্ষের জবাব—বেতন নাই। চাই আর নাইয়ের বেড়াজালে পড়ে অনেকেই চাকরিজীবন পার করে শূন্য হাতে অবসরে গেছেন। যাঁরা পড়ে আছেন তাঁরা চাকরির মায়ায় সীমাহীন হতাশায় হাবুডুবু খাচ্ছেন। বিআরডিবি কর্তৃপক্ষের কাছে সংখ্যাগরিষ্ঠ ইউসিসিএ-র কর্মচারীদের আবেদন একটিই—তাদের বেতনভাতা ও অন্যান্য সুবিধাপ্রাপ্তির ক্ষেত্রে স্থায়ী উত্স হিসেবে বিআরডিবির রাজস্ব খাতভুক্ত করে নেওয়া। যুগ যুগ ধরে অবহেলিত, উপেক্ষিত এসব কর্মচারীর বাঁচা-মরার সঙ্গে সম্পর্কিত ন্যায়সঙ্গত দাবি এটি। এ আবেদন আজো বাস্তবায়ন হয়নি। জাতীয় পর্যায়ে পল্লী উন্নয়ন কার্যক্রমে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক সমবায়ী কৃষকদের সেবায় নিয়োজিত বিআরডিবি কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত ভুক্তভোগী ইউসিসিএ কর্মচারীদের জীবনমান রক্ষায় মানবিক সাড়া দেওয়ার জন্য স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়, অর্থ মন্ত্রণালয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

নেপাল চন্দ্র সাহা,

উচ্চমান হিসাব সহকারী,

কসবা ইউসিসিএ লিমিটেড, কসবা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৩ মার্চ, ২০২১ ইং
ফজর৫:০৪
যোহর১২:১১
আসর৪:২৪
মাগরিব৬:০৫
এশা৭:১৮
সূর্যোদয় - ৬:১৯সূর্যাস্ত - ০৬:০০
পড়ুন