সত্যিই আমি অযোগ্য!
১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭ ইং
প্রত্যেকটি মানুষের একটি স্বপ্ন থাকে, জীবনের লক্ষ্য থাকে। সেই স্বপ্ন যখন ভেঙে যায়, তখন নিজেকে খুব অসহায় মনে হয়। নিজেকে পৃথিবীতে মূল্যহীন মনে হয়। ছোটবেলা থেকেই স্বপ্ন দেখতাম আমি একদিন বিচারক (জজ) হব, ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায় নিজেকে নিয়োজিত করব। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন ও বিচার বিভাগে চান্স পাওয়ার পর আরো বেশি স্বপ্ন দেখা শুরু করলাম। ২০১০ সালে এলএলবি (অনার্স)সহ এলএলএম পাস করলাম। পঞ্চম জুডিসিয়াল সার্ভিস পরীক্ষা ২০১০ (সহকারী জজ)-র নিয়োগ সার্কুলার প্রকাশিত হলো। পরীক্ষায় প্রথমবারের মতো অংশ গ্রহণ করলাম। এমসিকিউ এবং লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে মৌখিক পরীক্ষার যোগ্য হলাম। তখন মনে হলো, স্বপ্ন পূরণ হতে আর মাত্র কয়েকটি দিন বাকি। চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশিত হলো, আমি মনোনীত হলাম না। স্বপ্ন ভেঙে গেল, সবকিছু এলোমেলো হয়ে গেল। নিজেকে সামলে নিয়ে মনকে বোঝালাম ভেঙে পড়লে হবে না। আবার পরীক্ষায় অংশ নিলাম, লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে মৌখিক পরীক্ষার যোগ্য হলাম। কিন্তু আবারো স্বপ্ন ভেঙে চুরমার। নিজের কাঙ্ক্ষিত স্বপ্ন পূরণের আশায় মনকে মানিয়ে আবার পরবর্তী পরীক্ষা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিলাম। এভাবেই সর্বমোট ৫ বার লিখিত পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ৫ বারই মৌখিক পরীক্ষার যোগ্য হয়েছি। ২০১০ থেকে ২০১৭। ৬ বছরের না পাওয়ার বেদনা আজ আমাকে কুরে কুরে খাচ্ছে। আমি আজ এ দেশের অযোগ্য সন্তান। বড়োই অযোগ্য, বিচারক (সহকারী জজ) পদে নিয়োগ লাভের জন্য।

তুহিন আহমেদ

অ্যাডভোকেট, জজ কোর্ট,

চুয়াডাঙ্গা

 

 

 

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২১ ইং
ফজর৫:১৬
যোহর১২:১৩
আসর৪:১৭
মাগরিব৫:৫৭
এশা৭:১০
সূর্যোদয় - ৬:৩২সূর্যাস্ত - ০৫:৫২
পড়ুন