ডিএনডির ৪৫ কি.মি খাল উদ্ধার কেনা হয়েছে আরো ৫০টি পাম্প
বৃষ্টি হলেও দীর্ঘস্থায়ী জলাবদ্ধতার আশঙ্কা নেই : প্রকল্প পরিচালক
৩০ এপ্রিল, ২০১৮ ইং
ডিএনডির ৪৫ কি.মি খাল উদ্ধার কেনা হয়েছে আরো ৫০টি পাম্প
মো. মোসলেম উদ্দিন, সিদ্ধিরগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) সংবাদদাতা 

গতকালের প্রবল বর্ষণে ডিএনডি’র নিচু এলাকায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হলেও দীর্ঘস্থায়ী জলাবদ্ধতার আশঙ্কা নেই ডিএনডি এলাকায়- এমন আশ্বাস দিয়েছেন ‘ডিএনডি নিষ্কাশন ব্যবস্থার উন্নয়ন (দ্বিতীয় পর্যায়)’ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মো. আবদুল আউয়াল মিয়া। তিনি জানান, এ প্রকল্পের ১৫ ভাগ কাজ ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। আগামী বছরের মধ্যে প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন করা হবে। তিনি আরো জানান, পানি নিষ্কাশনের জন্য অতিরিক্ত ৫০টি পাম্প ক্রয় করা হয়েছে। এছাড়াও আদমজীস্থ নিষ্কাশন খাল দিয়ে এ বছরই পানি নিষ্কাশন করা যাবে। তিনি ডিএনডিবাসীদের আতংকিত না হয়ে প্রকল্প কাজ সম্পন্ন করতে সংশ্লিষ্টদের সহযোগিতা করার আহ্বান জানান।  

জানা গেছে, ইতোমধ্যে ৯০ কি.মি এর মধ্যে ৪৫ কি.মি খাল উদ্ধার, ১৫ কি.মি খাল পুনঃ খনন করাসহ প্রকল্পের ১৫ ভাগ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। ডিএনডি’র জলাবদ্ধতা নিরসনে সরকারের নেয়া এই প্রকল্পের কাজ গত ডিসেম্বর থেকে সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে শুরু হয়েছে।

এদিকে গতকালের প্রবল বর্ষণ ও বেশ কিছু দিন ধরে বৃষ্টির কারণে ডিএনডি’র নিচু এলাকাসহ অধিকাংশ এলাকায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। অন্যান্য বছরের তুলনায় এ বছর বৃষ্টির পরিমাণ বৃদ্ধি পাওয়ায় এবং গত বছর ৬ মাসেরও বেশি সময় পানিতে ডিএনডি এলাকা তলিয়ে থাকায় আতঙ্কে সেখানকার বাসিন্দারা। জলাবদ্ধতা সমস্যা নিরসনে সরকার গৃহীত প্রকল্পের কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলেছে। এর মধ্যে শিমরাইল ও আদমজী এলাকায় ২টি পাম্প স্টেশন এবং ফতুল্লা, পাগলা ও শ্যামপুরে ৩টি পাম্পিং প্লান্ট নির্মাণে কাজ চলছে। এসব এলাকায় ৪৫ কি.মি নিষ্কাশন খাল উদ্ধার করাসহ ১৫ কি.মি খাল পুনঃখনন করা হয়েছে।

গতকাল রবিবার সরেজমিনে সিদ্ধিরগঞ্জ কদমতলী এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, আদমজী এলাকার পাম্প স্টেশনের কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। উদ্ধার করা হয়েছে সোনামিয়া মার্কেট-আদমজী ইপিজেড সংলগ্ন পানি নিষ্কাশন খাল। এ মৌসুমেই এ খাল দিয়ে পানি নিষ্কাশন করা সম্ভব হবে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন। এছাড়া শিমরাইল এলাকায়ও পাম্প ষ্টেশন নির্মাণের কাজ দ্রুত এগিয়ে চলেছে।

ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ-ডেমরায় ডিএনডি’র অভ্যন্তরের প্রায় ২০ লাখ বাসিন্দাকে জলাবদ্ধতার দুর্ভোগ থেকে রক্ষা করতে সরকার সাড়ে ৫০০ কোটি টাকারও বেশি ব্যয়ে ‘ডিএনডি নিষ্কাশন ব্যবস্থার উন্নয়ন (দ্বিতীয় পর্যায়)’ প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৩০ এপ্রিল, ২০২১ ইং
ফজর৪:০৪
যোহর১১:৫৬
আসর৪:৩২
মাগরিব৬:২৯
এশা৭:৪৭
সূর্যোদয় - ৫:২৫সূর্যাস্ত - ০৬:২৪
পড়ুন