প্রয়োজন যেখানে উদ্ভাবনের প্রেরণা
০৮ জুন, ২০১৫ ইং
প্রয়োজন যেখানে উদ্ভাবনের প্রেরণা
l শেখ হাসান হায়দার l

 

একটু পরেই জরুরি মিটিং। হঠাত্ মনে পড়ল জরুরি এক পয়েন্ট সহকর্মীদের জানানো হয়নি। হাতে তেমন সময়ও নেই, কী করা যায় এমন অবস্থায়? হোয়াটস অ্যাপে গ্রুপ চ্যাট, স্কাইপিতে ভিডিও কলিং, নাকি ড্রপবক্সে প্রয়োজনীয় ফাইল আপলোড করে সবার সাথে শেয়ার—এত কম সময়ে কোন ঝক্কির বিষয়টি বেছে নিবেন আপনি?

এ ধরনের পরিস্থিতিতে আমরা সবাই কমবেশি পড়েছি কিন্তু খুঁজিনি এর সহজ কোনো সমাধান। কিন্তু মারিয়া সেইডমেন ছিলেন ভিন্ন। তিনি যখন এমন পরিস্থিতির সম্মুখীন হলেন তখন থেকেই খুঁজতে লাগলেন এর সমাধানের পথ। কীভাবে সহজেই সহকর্মী বা বন্ধুদের সাথে কোনো বিষয় নিয়ে দ্রুত আলোচনা করা যায়, ফাইলস-ছবি শেয়ার করা যায় এবং গোপনীয়তাও রক্ষা করা যায়—এমন চিন্তা থেকেই সিদ্ধান্ত নিলেন একটি অ্যাপ্লিকেশন (অ্যাপ) প্ল্যাটফর্ম বানাবেন যেখান থেকে সহজেই ব্যবহারকারীরা নিজেদের প্রয়োজনমতো অ্যাপ্লিকেশন নিজেরাই বানাতে পারবেন। এমন চিন্তা থেকেই তৈরি করলেন ইয়াপ (YAPP)। এটি এমন এক অ্যাপ্লিকেশন বানানোর সাইট যেখানে ব্যবহারকারী নিজেই নিজের প্রয়োজনমতো মোবাইল অ্যাপ নিজেই বানাতে পারবেন কোনো কোডিং ছাড়াই। বর্তমানে আইওএস আর এন্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরাই ইয়াপ ব্যবহার করতে পারবেন।

মারিয়া ‘ইয়াপ’-এর চিন্তা করলেন ঠিকই কিন্তু তিনি জানতেন না প্রোগ্রামিং কিংবা কোডিং। কাউকে দিয়ে করিয়ে নিতেও যে টাকা লাগত তাও তার কাছে তখন বিশাল। তাই লিউক মেইলাকে তিনি পার্টনার হিসেবে নিয়ে প্রতিষ্ঠা করলেন এই প্ল্যাটফর্ম। লিউক ইয়াপের প্রোগ্রামিংয়ের দিকটা দেখেন আর জলদি তৈরি করেন প্ল্যাটফর্মটি। এই প্ল্যাটফর্মে গিয়ে ব্যবহারকারী তার প্রয়োজনমতো তথ্য দিয়ে, কী কী ট্যাব বা ফিচার তিনি যুক্ত করতে চান তা দিলেই তৈরি হয়ে যাবে মোবাইল অ্যাপটি। ধরা যাক কারো এমন একটি অ্যাপ লাগবে যার মাধ্যমে তিনি তার সহকর্মীদের সাথে জরুরি আলোচনা করতে পারবেন। সেক্ষেত্রে তিনি প্ল্যাটফর্মে গিয়ে বেসিক তথ্যের পর ট্যাব বা ফিচার বাটন হিসেবে যুক্ত করলেন—আলোচনা, সময়, ডকুমেন্টস, এজেন্ডা, ইনফো এবং অন্যান্য। ব্যস কাজ শেষ এরপর সাবমিট করলেই তৈরি হয়ে যাবে আপনার অ্যাপ। এখন আপনি সহজেই অ্যাপটি আপনার সহকর্মীদের সাথে শেয়ার করে দ্রুত এক অ্যাপ দিয়েই সবার সাথে যোগাযোগ করতে পারবেন। আলোচনা বিভাগে আলোচনা করলেন, ডকুমেন্টস বিভাগে প্রয়োজনীয় ফাইলস, ছবি, ভিডিও শেয়ার করলেন, এজেন্ডা বিভাগে জানতে পারলেন মিটিংয়ের বিষয় সম্পর্কে। সাধারণ অ্যাপগুলো বিনামূল্যেই তৈরি করা যাবে ইয়াপ থেকে কিন্তু বড় বা জটিল অ্যাপ তৈরির জন্য অর্থ দিতে হবে। বর্তমানে ইয়াপ টিমে কো ফাউন্ডার হিসেবে মারিয়া ও লিউক আছেন, আর কর্মী হিসেবে রয়েছেন আটজন দক্ষ প্রোগ্রামার। ইচ্ছা থাকলে যেকোনো কিছু সম্পর্কে জ্ঞান কম থাকলেও তা যে স্বপ্ন পূরণের পথে বাধা হতে পারে না তা প্রমাণ করে দিয়েছেন মারিয়া। ইয়াপ অ্যাপটির জন্য মারিয়া ২০১৪ সালে সেরা উদ্যোক্তার পুরস্কার পান। বর্তমানে মারিয়া তার টিমকে নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন ইয়াপকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৮ জুন, ২০২১ ইং
ফজর৩:৪৩
যোহর১১:৫৮
আসর৪:৩৮
মাগরিব৬:৪৭
এশা৮:১১
সূর্যোদয় - ৫:১১সূর্যাস্ত - ০৬:৪২
পড়ুন