স্থাপত্যবিদ্যায় এগিয়ে যেতে
০৮ আগষ্ট, ২০১৬ ইং
স্থাপত্যবিদ্যায় এগিয়ে যেতে
কোনো স্থাপনা নির্মাণের আগে প্রয়োজন নকশা। আর সে নকশা করেন স্থপতি। একজন স্থপতিই নিশ্চিত করেন স্থাপনাটি পরিবেশসম্মত, ঝুঁকিমুক্ত ও নিরাপদ কি না। স্থাপত্য বিভাগের শিক্ষার্থী হিসেবে হবু স্থপতিকে দুনিয়ার সব নির্মাণ কলাকৌশল সম্পর্কে জ্ঞাত থাকতে হয়। মানুষের আবাসন চাহিদা মেটানোর লক্ষ্যে বিভিন্ন শ্রেণিগোষ্ঠীর জন্য বিবিধ পরিকল্পনা নিয়ে বাংলাদেশে আর্কিটেক্টরা কাজ করেন। ক্রমবর্ধমান চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে অপার সম্ভাবনাময় এক্ষেত্রটি প্রসারিত হচ্ছে। প্রথম দিকে হাতেগোনা কিছু কোম্পানি ঢাকাকেন্দ্রিক বিল্ডিং ডিজাইনের ক্ষেত্রে আর্কিটেকচারাল বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করলেও বর্তমানে ঢাকা ও এর বাইরের বড় শহরগুলোতেও বিল্ডিং এবং অন্যান্য অবকাঠামো তৈরির ক্ষেত্রে আর্কিটেকচারাল ডিজাইনের সহায়তা নিতে আইনগত বাধ্যবাধকতা রয়েছে। সাম্প্রতিক সময়ে বাণিজ্যিক মাত্রা ছাড়িয়ে ক্রেতার সংস্থাপন সংক্রান্ত বিভিন্ন চাহিদা, দুর্যোগ মোকাবেলায় ভবনের দৃঢ়তা, দীর্ঘস্থায়িত্ব, দর্শনীয় নান্দনিকতা প্রভৃতি বিষয় দ্রুত প্রসারমাণ আর্কিটেক্ট ক্ষেত্রটিতে বিজ্ঞানসম্মতভাবে পূরণ করার ওপর জোর দেওয়া হচ্ছে। এমনই চিন্তা থেকে তরুণদের জন্য গড়ে উঠেছে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি (এনআইআইটি)। দক্ষ আর্কিটেক্ট গড়ে তোলার লক্ষ্য নিয়ে এখানে যোগ হয়েছে ডিজাইন স্টুডিও, কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন, ম্যাথমেটিকস ফর আর্কিটেক্ট, ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ স্কিল ডেভেলপমেন্ট, ডকুমেন্টেশন, গ্রাফিকস অ্যান্ড ফ্রি হ্যান্ড ড্রইং, বিল্ডিং ফিজিকস, ডিজাইন থিওরি, ইকোলজি, আর্ট অ্যাপ্রিসিয়েশনসহ আরও নানা বিষয়। আরও জানতে যোগাযোগ করতে পারেন এই নম্বরে ০১৯৭১২২০০৯৯। স্বল্পসম্পদ ও পরিমিত আবাসযোগ্য জমির বিপরীতে এ দেশের ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার চাপ সামলাতে সফলভাবে পরিকল্পনা মাফিক নগরায়ণ ও স্যাটেলাইট সিটি স্থাপনে সফল আর্কিটেক্ট গড়ে তোলা এখন সময়ের দাবি। তাই এনআইআইটির এই উদ্যোগ নতুন প্রজন্মের জন্য আরও বেশি যুগোপযোগী হয়ে উঠবে।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৮ আগষ্ট, ২০১৯ ইং
ফজর৪:০৯
যোহর১২:০৫
আসর৪:৪১
মাগরিব৬:৪০
এশা৭:৫৯
সূর্যোদয় - ৫:৩১সূর্যাস্ত - ০৬:৩৫
পড়ুন