পা দিয়ে লিখে জিপিএ-৫
১৫ মে, ২০১৭ ইং
পা দিয়ে লিখে জিপিএ-৫
জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার শিবপুর গ্রামের অদম্য মেধাবী বিউটি আকতার। জন্ম থেকেই তার দুই হাত নেই। তবে এই প্রতিবন্ধকতা তাকে থামিয়ে রাখতে পারেনি। ছোটবেলা থেকে পা দিয়ে লিখেই পড়াশোনা চালিয়েছেন তিনি। আর এবার এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে বিউটি পেয়েছেন জিপিএ-৫, তাও বিজ্ঞান বিভাগ থেকে!

বিউটি আকতার উপজেলার শিবপুর গ্রামের হতদরিদ্র পরিবারের সন্তান। তার বাবার নাম বায়েজীদ হোসেন। বায়েজীদ হোসেনের অভাবী পরিবারে দুই সন্তান। এর মধ্যে বিউটি ছোট। ছোটবেলা থেকেই লেখাপড়ার প্রতি আগ্রহ আর দৃঢ়তা নিয়েই বিউটি তার স্বপ্নপূরণে এগিয়ে চলেছেন। পড়ালেখা শেষ করে একজন আদর্শ শিক্ষক হওয়ার স্বপ্ন দেখেন বিউটি।

ক্ষেতলাল উপজেলার আকলাশ শিবপুর শ্যামপুর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবছর এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছিল বিউটি। কারো সাহায্য ছাড়াই পা দিয়ে লিখেছেন প্রতিটি পরীক্ষার খাতায়। সব প্রশ্নের উত্তর করেছেন। এমন করেই এর আগেও প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী এবং জেএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে প্রতিটি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছিলেন তিনি। শুধু তাই নয়, জিপি-৫-এর পাশাপাশি সাধারণ গ্রেডে বৃত্তিও পেয়েছিলেন। অদম্য বিউটির ধারাবাহিক এ সাফল্য রীতিমতো পুরো এলাকাবাসীকেই অবাক করেছে।

আকলাশপুর শিবপুর শ্যামপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আকামদ্দিন জানান, সবসময়ই লেখাপড়ার প্রতি বিউটির প্রবল আগ্রহ দেখেছেন। বিউটি সবসময় নিয়মিত ক্লাসে উপস্থিত থাকতেন এবং নিজেকে কখনোই প্রতিবন্ধী মনে করতেন না। বিউটি আকতার বলেন, ‘আমি বড় হয়ে একজন ভালো শিক্ষক হতে চাই, সবার দোয়া নিয়ে অনেকদূর এগিয়ে যেতে চাই।’

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১৫ মে, ২০২১ ইং
ফজর৩:৫২
যোহর১১:৫৫
আসর৪:৩৩
মাগরিব৬:৩৬
এশা৭:৫৬
সূর্যোদয় - ৫:১৬সূর্যাস্ত - ০৬:৩১
পড়ুন